“আমাদের অঙ্গীকার-কুষ্ঠ প্রতিবন্ধী শিশু একটিও নয় আর”

প্রকাশ:| রবিবার, ৩১ জানুয়ারি , ২০১৬ সময় ০৬:০২ অপরাহ্ণ

কুষ্ট দিবস ২

৩১জানুয়ারী চট্রগ্রাম প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে একটি আলোচনা সভার আয়োজন করা হয় ,সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল তত্ত্বধায়ক ডাঃ মুরশিদ আরা বেগম, বিশেষ অতিথিদ্বয় ছিলেন যথাক্রমে কামাল উদ্দিন, সভাপতি-ডাপা, সাউদার্ন মেডিকেল কলেজ বিভাগীয় কমিউনিটি মেডিসিন প্রধান প্রফেসর ডাঃ এম. সুলতান-উল আলম, আগ্রাবাদ সিনিয়র কনসালটেন্ট, চর্ম ও সামাজিক চিকিৎসা ডাঃ কাজী জয়নাল আবেদীন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর মিসেস আনজুমান আরা বেগম, , ১৬ নং চকবাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইয়্যেদ গোলাম হায়দার মিন্টু, সভাপতিত্ব করেন দি লেপ্রসি মিশন ইন্টারন্যাশনাল-বাংলাদেশ এর প্রোগ্রাম লিডার মিঃ জন অর্পণ সমদ্দার।

কামাল উদ্দিন বলেন,২০১৬ সালে সীতাকু- থানায়, সলিমপুর এলাকায় ১জন শিশু কুষ্ঠরোগী সনাক্ত করা হয় ও চিকিৎসা শুরু করা হয়, তিনি আরও বলেন প্রাথমিক পর্যায়ে কুষ্ঠরোগী চিহ্নিত হলে সাথে সাথে চিকিৎসা শুরু হলে বিকলাঙ্গতা থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।

চর্ম ও সামাজিক চিকিৎসা কেন্দ্র সিনিয়র কনসালটে›ন্ট ডাঃ কাজী জয়নাল আবেদীন বলেন , স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে এবং মাঠ পর্যায়ে দরিদ্র জনগণকে স্বাস্থ্যসম্মত খাবার গ্রহণের পরামর্শ দেন। মাঠ পর্যায়ে রোগী সন্দেহ হলে ডাক্তারের কাছে রেফার্ড করার পরামর্শ দেন। স্কিন স্ম্যিয়ার করার জন্য বেসরকারী কিলিœকের ল্যাব টেকনিশিয়ানদের প্রশিক্ষণ প্রদানের পরামর্শ দেন।
কুষ্ট দিবস
সংরক্ষিত কাউন্সিলর আনজুমান বলেন, আমরা চাই না আমাদের দেশে কুষ্ঠরোগ থাকুক, কুষ্ঠরোগ নিপাত যাক, চিকিৎসা পেয়ে জনগণ যেন সন্তুষ্ট থাকে। কুষ্ঠরোগ সাধারণ রোগ নয় তা জনগণকে জানাতে হবে। মাঠ পর্যায়ে কোন সমস্যা হলে সংশ্লিষ্ট জনপ্রতিনিধিকে অবহিত করার পরামর্শ দেন। আমাদের সহযোগীতা অব্যাহত থাকবে। আমাদের সহযোগীতায় একদিন এ দেশথেকে কুষ্ঠরোগ চলে যাবে।

প্রফেসর ডাঃ এম. সুলতান-উল আলম, দেশের উন্নতির জন্য সরকারের সাথে সমন্বয় রেখে দি লেপ্রসি মিশন ইন্টারন্যাশনাল এর কার্যক্রম সফলতার সাথে এগিয়ে চলছে। জনগণকে স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন হতে হবে এবং এই সংস্থার কার্যক্রমের কাজে সহযোগীতা করার জন্য পরামর্শ দেন। সাইয়্যেদ গোলাম হায়দার মিন্টু, কাউন্সিলর, ১৬ নং চকবাজার ওয়ার্ড বলেন মানুষ মানুষের জন্য কুষ্ঠ একটি রোগ। প্রাথমিক ভাবে কুষ্ঠরোগী সনাক্ত হলে “তার কুষ্ঠরোগ হয়েছে এমন কথা না বলা’র পরামর্শ দেন। প্রথমে চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ’র কাছে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দেন অবস্থার উন্নতি না হলে কুষ্ঠরোগ বিশেষজ্ঞ’র কাছে বা কুষ্ঠ ক্লিনিকে পাঠানোর পরামর্শ দেন।

প্রধান অতিথি, ডাঃ মুরশিদ আরা বলেন ,সিটি কর্পোরেশনের একটি স্কুল হেল্থ প্রোগ্রাম চালু আছে, তাদের সাথে সমন্বয় রেখে স্কুলের ছাত্রদের স্বাস্থ্য সচেতনতা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার কথা বলেন। টি.ভি-লেপ্রসি কার্যক্রম সরকারের একটি প্রোগ্রাম এর পার্টনার হিসাবে দি লেপ্রসি মিশন ইন্টারন্যাশনাল লেপ্রসি বিষয়ক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। সচেতনা বৃদ্ধির জন্য জনপ্রতিনিধিদেরকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

সভাপতি, জন অর্পণ সমদ্দার বলেন ,কুষ্ঠরোগের চিকিৎসা দিয়েই দায়িত্ব শেষ করা যাবে না। প্রাথমিক পর্যায়ে যাতে রোগী সনাক্ত হয় এবং চিকিৎসার আওতায় আনার ব্যবস্থা করলে প্রতিবন্ধীতার হাত থেকে রোগীকে বাচাঁনো যাবে এবং ব্যাপক গণসচেতনতা বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিক ও রির্পোটারদেরকে আহবান জানান, তিনি বলেন একমাত্র গণসচেতনতা ছাড়া এ রোগ সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রন করা মোটেই সম্ভব নয়।


আরোও সংবাদ