আমদানি করা ৫ বছরের বেশি পুরনো গাড়ি ছাড় পাচ্ছে

প্রকাশ:| বুধবার, ১৪ অক্টোবর , ২০১৫ সময় ০৮:৩২ অপরাহ্ণ

বিভিন্ন সরকারি সংস্থার উন্নয়নকাজের স্বার্থে আমদানি করা পাঁচ বছরের বেশি পুরনো ১১৩টি গাড়ি বন্দর থেকে ছাড় করার অনুমোদন দিয়েছে অর্থনৈতিক বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটি।

আমদানি করা ৫ বছরের বেশি পুরনো গাড়ি ছাড় পাচ্ছেবুধবার সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত দেশের বাইরে থাকায় শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব মোশাররফ হোসাইন ভূইঞাসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিবরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মাকসুদুর রহমান পাটোয়ারি সাংবাদিকদের জানান, ‘বিশেষ বিবেচনায় এসব গাড়ি ছাড়করণের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।’

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, বিদ্যমান আমদানিনীতি অনুযায়ী, পাঁচ বছরের অধিক পুরনো মোটরকার, মাইক্রোবাস, মিনিবাস, জিপসহ অন্যান্য পুরনো যানবাহন ও ট্রাক্টর আমদানি করা যায় না। কিন্তু দশটি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের (চট্টগ্রাম ওয়াসা, খুলনা ওয়াসা) উন্নয়নকাজের জন্য উন্নয়নকাজে ব্যবহৃত (হিনো লরি ক্রেন, ড্রাম ট্রাক, প্রাইম মোডার, ক্রেন ট্রাক, মিঙ্গার লরি, কংক্রিট মিঙ্গার মেশিন, রাফ ক্রেন, রাফ ট্রেইন ক্রেন ইত্যাদি) পাঁচ বছরের অধিক ১১৩টি গাড়ি দীর্ঘদিন ধরে বন্দরে পড়ে আছে।

সূত্র জানায়, পাঁচ বছরের অধিক পুরনো হওয়ায় এবং প্রাইভেট কারসহ অন্যান্য গাড়ির সঙ্গে একই শ্রেণিভুক্ত হওয়ার কারণে বন্দর শুল্ক-কর্তৃপক্ষ এসব গাড়ি ছাড়ের অনুমতি দিচ্ছে না। ফলে উন্নয়ন কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। আমদানিকারকরা এসব গাড়ি ছাড়করণে ‘ক্লিয়ারেন্স পারমিট’ (সিপি) প্রদানে বাণিজ্যমন্ত্রণালয়ে আবেদন জানিয়েছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এর অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তবে বিধি অনুযায়ী এসব গাড়ির ওপর প্রযোজ্য শুল্ককর ও জরিমানা আদায় এবং আমদানিকারকদের বিভিন্ন শর্ত প্রতিপালন করতে হবে বলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।