আবারো বর্ণবাদের লজ্জায় ডুবলো ইংলিশ ফুটবল ভক্তরা

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি , ২০১৫ সময় ০৯:১১ অপরাহ্ণ

মোবাইল ফোনে ধারণ করা একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে এক কৃষ্ণাঙ্গ তরুণ যখন একটি টেনে ওঠার চেষ্টা করছে তখন ভেতরে থাকা একদল শ্বেতাঙ্গ তাকে ধাক্কা দিয়ে নামিয়ে দিচ্ছে।

নিজেদের বর্ণবাদি বলে দাবী করে সেই শ্বেতাঙ্গ দলটিকে শ্লোগান দিতেও শোনা যায়। তারা শ্লোগান দিচ্ছিলো , “আমরা বর্ণবাদি।আমরা বর্ণবাদি।আমরা এটাই পছন্দ করি।”

মঙ্গলবার প্যারিসে ব্রিটিশ ক্লাব চেলসি এবং ফরাসী ক্লাব সেন্ট জার্মেইনের মধ্যকার চ্যাম্পিয়ন্স লীগের একটি ম্যাচের আগে এই ঘটনা ঘটে।

প্যারিসের মেট্রো ট্রেনে বর্ণবাদি আচরণের শিকার কৃষ্ণাঙ্গ তরুণ বলেছেন যারা তার সাথে এই আচরণ করেছে তাদের শাস্তি হওয়া দরকার। যারা এই শ্লোগান দিচ্ছিলো তারা ব্রিটিশ এবং ফুটবল ক্লাব চেলসির সমর্থক বলে জানা যায়।

বর্ণবাদি আচরণের শিকার সেই তরুণ ফরাসি একটি পত্রিকাকে সাক্ষাৎকারে বলেছেন তিনি এই ঘটনায় বিস্মিত হননি কারণ তিনি বর্ণবাদের সাথেই বসবাস করেন।

তিনি বলেন শুধু গায়ের রংয়ের কারণেই তাকে সেই পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়েছিল।

৩৩ বছর বয়সী সেই তরুণ বলেন , “ আমি আমার সন্তানদের এখন কি বলতে পারি? তাদের বাবা কালো হওয়ায় ট্রেন থেকে ধাক্কা দিয়ে নামিয়ে দিয়েছে?”

যারা এই আচরণ করেছে তাদের খুঁজে বের করে শাস্তির দাবী করেন এই তরুণ।

যদিও এই ঘটনার ব্রিটিশরা জড়িত বলে মনে করা হচ্ছে, কিন্তু ফ্রান্সে এই ধরনের ঘটনা নতুন নয়।

বর্ণবাদের বিরুদ্ধে আইন এবং নানা ধরনের ব্যবস্থা থাকলেও ফ্রান্সে বর্ণবাদের ঘটনা বেড়েই চলেছে।

এদিকে ফ্রান্সের এই ঘটনা নিয়ে লন্ডন পুলিশ বলছে বর্ণবাদি আচরণের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের খুঁজে বের করতে তারা ফরাসি কর্তৃপক্ষকে সহায়তা করবে।

এছাড়া চেলসি ফুটবল ক্লাবও বলেছে জড়িতদের বিষয়ে তারা পুলিশকে সহায়তা করবে এবং মাঠে তাদের নিষিদ্ধ করা হবে। ক্লাবের একজন মুখপাত্র বলেন ফুটবলে বর্ণবাদের কোন স্থান নেই।

কিন্তু ফিফার বর্ণবাদ বিরোধী টাস্কফোর্সের প্রধান বলছেন ইংলিশ ফুটবলে বর্ণবাদ একটি ‘প্রকাশ্য বিষয়।’

টাস্কফোর্সের প্রধান জেফরি ওয়েব বলেন ইংলিশ ফুটবলে বর্ণবাদের বিষয়টি গোপন কোন বিষয় নয়। এটা নিয়ে প্রকাশ্যে কেউ আলোচনা করতে চায় না।