আপনার নাম থাকতে পারে চাঁদের প্রথম বাড়িটিতে

প্রকাশ:| বুধবার, ৪ জুন , ২০১৪ সময় ০৮:৫৩ অপরাহ্ণ

চাঁদের প্রথম বাড়িটিতে থাকতে পারে আপনার নামএতোদিন চাঁদ আর মঙ্গল গ্রহে বসতি নিয়ে বহু জল্পনা-কল্পনা হয়েছে। এবার চাঁদের প্রথম বাড়িটি দেখতে কেমন হবে, তা নিয়ে কল্পনার জাল বুনছেন অনেকেই। ধাপে ধাপে মানুষের অগ্রগতির ছাপটা এতে সুস্পষ্ট। আরও মজার ব্যাপারটি হচ্ছে, আপনার সামনে রয়েছে ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে থাকার সুবর্ণ সুযোগ। চাঁদে নির্মিত প্রথম বাড়িটির ভেতরে আপনার নামটি লেখা থাকবে। তবে এ সুযোগটা নিতে হলে আপনাকে চাঁদে বাড়ি নির্মাণ প্রকল্পে দান করতে হবে দেড় কোটি ডলার বা বাংলাদেশী মুদ্রায় মাত্র ১১৭ কোটি টাকা। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা আএএনএস। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে, চাঁদে ক্ষুদ্রাকৃতির লাল-সাদা রঙের একটি বাড়ি নির্মাণ করবেন সুইডেনের শিল্পী ও উদ্যোক্তা মিকায়েল জেনবার্গের। বাড়িটিতে একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ থাকতে পারবেন। কার্বনের অবকাঠামোর ওপর মহাকাশে ব্যবহৃত বিশেষ কাপড়ের সাহায্যে এ বাড়িটি বানাতে চান তিনি। বাড়িটির ওজন হবে ২২ পাউন্ড। অবশ্য, চাঁদে এ ওজনটি হবে ৩ দশমিক ৭৫ পাউন্ড। আরও মজার ব্যাপার হচ্ছে, বাড়িটি চাঁদে পাঠানোর পরই স্বয়ংক্রিয়ভাবে নির্মিত হবে। এ পরিকল্পনার সফল বাস্তবায়নে মিকায়েল যুক্তরাষ্ট্রের এয়্যারোস্পেস প্রতিষ্ঠান অ্যাস্ট্রোবোটিকের সঙ্গে কাজ করছেন। এ প্রতিষ্ঠানটির অংশীদার হিসেবে নাসাও যুক্ত। ২০০৩ সাল থেকেই এ প্রকল্পের কাজ শুরু করে দিয়েছেন তিনি। কিন্তু, অর্থাভাবে প্রকল্পটির কাজের গতি বেশ কমে গেছে। তা সত্ত্বেও প্রায় ৭৫ শতাংশ কাজ এরই মধ্যে সম্পন্ন করেছেন শিল্পী মিকায়েল। ২০১৫ সালের অক্টোবরে চাঁদে পাঠানো হবে বাড়িটিকে। সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণে এ পর্যন্ত প্রায় ৪ হাজার ডলার বা ৩১ লাখ টাকার তহবিল সংগ্রহ করা হয়েছে। এবার শুধু চাঁদে প্রথম বাড়ি নির্মাণের অপেক্ষা। আর তাতে আপনার নামটি সংযোজনের সুযোগ তো থাকছেই।