‘আন্দোলন চূড়ান্ত পরিণতির দিকে’

প্রকাশ:| সোমবার, ৯ মার্চ , ২০১৫ সময় ০৮:৫৭ অপরাহ্ণ

ঢাকা মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মির্জা আব্বাস ও সদস্য সচিব হাবিব-উন নবী খান সোহেলচলমান সরকার পতন আন্দোলন চূড়ান্ত পরিণতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মির্জা আব্বাস ও সদস্য সচিব হাবিব-উন নবী খান সোহেল। গণমাধ্যমে পাঠানো মির্জা আব্বাসের প্রেস সচিব জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু স্বাক্ষরিত এক যৌথ বিবৃতিতে তারা এ মন্তব্য করেন। বিবৃতিতে আব্বাস-সোহেল বলেন, অবৈধ সরকার পতন আন্দোলন এখন চূড়ান্ত পরিণতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। ক্ষমতা হারানোর ভয়ে তারা এখন দিশেহারা, উদভ্রান্ত। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে চলমান আন্দোলন বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে এসে পৌঁছেছে। শত অন্যায়, নিপীড়ন, জুলুম সহ্য করে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়া ছাড়া অন্য কোন বিকল্প পথ এখন আর খোলা নেই। তারা বলেন, সরকার পতন এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। তাই জনগণকে সঙ্গে নিয়ে অহিংস আন্দোলনে ঢাকা মহানগরের সকল স্তরের নেতা-কর্মীদের রাজপথে থাকার আহ্বান জানান। মির্জা আব্বাস ও সোহেল বলেন, ২০ দলের জনসম্পৃক্ত আন্দোলনের ফলে সারা দেশ অচল হয়ে পড়েছে। রাজধানী বিচ্ছিন্ন। তারপরও সরকার ক্ষমতার মোহে অন্ধ হয়ে বন্ধুর পথে হাঁটছে। কার্যত এরা এখন টিকে আছে দোষারূপমূলক বক্তব্য দিয়ে।
সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খালেদা জিয়াকে জঙ্গি নেত্রী ও তাকে শাস্তির হুমকির নিন্দা জানিয়ে তারা বলেন, বেগম খালেদা জিয়া এ দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী। নিজেদের দোষ এখন তারা অন্যের ঘাড়ে চাপিয়ে পার পাওয়ার চেষ্টা করছেন। অথচ জোট আমলে বেগম জিয়াই এ দেশ থেকে জঙ্গি নির্মূল করেছেন। তারা বলেন, জনবিচ্ছিন্ন সরকার ইতিমধ্যে আন্তর্জাতিকভাবেও বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। দেশের জনগণের মনোভাব তারা পরোয়া করছে না। তারা বলেন, সরকারের জনসমর্থন শূন্যের কোঠায়। এখন তারা অন্যায় অত্যাচার এবং বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর নির্বিচারে গুলি, ক্রসফায়ার, হত্যাকাণ্ড চালিয়ে ক্ষমতায় টিকে আছে। এই অমানবিক নীতি থেকে সরে এসে দ্রুত গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার দাবি জানান তারা।