আন্দোলনের শক্তি নেই বিএনপি’র-আমিনুল

প্রকাশ:| শনিবার, ২ আগস্ট , ২০১৪ সময় ১১:২০ অপরাহ্ণ

এ.কে. আজাদ, লোহাগাড়া:
আমিনুলবাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আমিনুল ইসলাম আমিন বলেছেন, খালেদা জিয়া হুমকি দিলেও আন্দোলনের সেই শক্তি ও সামর্থ্য নেই বিএনপি’র । খালেদা-তারেকের একের পর এক হুমকি ও মিথ্যা নাটকের কারণে বিএনপি সাংগঠনিক শক্তি ক্রমশ: দূর্বল হয়ে পড়েছে। যতই হুমকি-ধমকি দেন না কেন কোন লাভ হবে না। বিএনপি’র মত ভাওতাবাজির দলের পক্ষে এ দেশে কোন আন্দোলন-সংগ্রাম অতীতেও সফল হয়নি ভবিষ্যতেও হবে না। দেশের জনগণ শেখ হাসিনা ও আওয়ামীলীগের সাথে রয়েছে। তিনি তৃণমূল আ.লীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন সম্মেলনের মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায়ে আ.লীগকে শক্তিশালী করার কোন বিকল্প নেই। তৃণমূল পর্যায়ে আওয়ামীলীগের নতুন কর্মী সৃষ্টি করতে হবে। সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড ও সফলতাগুলো এসব কর্মীদের মাধ্যমে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে হবে। গত ২ আগষ্ট শনিবার বিকেল ৩ টায় স্থানীয় দরবেশ হাটে লোহাগাড়া সদর ইউনিয়ন আ.লীগের কর্মী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। প্রবীন আ.লীগ নেতা মাষ্টার হাশেমুর রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম দ. জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আ.লীগের সভাপতি খোরশেদ আলম চৌধুরী, উপজেলা সাধারণ সম্পাদক সালাহ উদ্দীন হিরু, দ. জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহ্বায়ক মো. জোবায়ের, লোহাগাড়া প্রেসক্লাব সভাপতি নুরুল ইসলাম, উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি আবদুস শুক্কুর রশিদী, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হাসান মিন্টু ও মো: মিয়া ফারুক, দপ্তর সম্পাদক তৈয়বুল হক বেদার, কৃষি ও সমবায় সম্পাদক আবদুল শুক্কুর চৌধুরী, আবু তালেব, জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক রিদওয়ানুল হক সুজন, যুগ্ন আহ্বায়ক মিজানুর রহমান ও সিনিয়র সদস্য মুর্শেদুল আলম নিবিল প্রমুখ। ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আবছার সিকদারের সঞ্চালনায় সভায় অন্যান্যাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ.লীগের উপদেষ্টা হাজী দেলোয়ার হোসেন, হাফেজ আহমদ চৌধুরী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, কোষাধ্যক্ষ হাজী মাহামদুল হক, কার্যনির্বাহী সদস্য আবছার আহমদ, হেফাজত উল্লাহ সিকদার, মামুনুর রশিদ, জসিম উদ্দীন, যুবলীগ নেতা আবদুল হামিদ, ইব্রাহিম চৌধুরী, ছাত্রলীগ নেতা রুবেল, রিহান চৌধুরী পারভেজ, মিশকাত, মামুন, জিহাদ ও আরফাত প্রমুখ।