আন্দোলনের ধারাবাহিকতা নষ্ট করতে সরকার সংলাপ নাটক করছে

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১ নভেম্বর , ২০১৩ সময় ০৮:২৭ অপরাহ্ণ

নির্দলীয় সরকারের দাবিতে বিরোধী দলের চলমান আন্দোলনের ধারাবাহিকতা নষ্ট করে তা ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে সরকার সংলাপ নাটক করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।ctg-(bnp)-1.11.13

তিনি বলেন, ‘দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন করার জন্য সংলাপের নামে শেখ হাসিনা সরকার সময়ক্ষেপণ করেছে। কিন্তু দেশের নব্বই ভাগ জনগণের একমাত্র চাহিদা নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন। জনগণ দলীয় সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন মেনে নেবে না এবং তা হলে প্রতিহত করবে।’

শুক্রবার বিকেলে নগরীর উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ড ১৮ দলীয় জোটের উদ্যেগে স্থানীয় নুরুল হক চৌধুরী হাইস্কুল মাঠে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

আমীর খসরু আরো বলেন, ‘সরকার পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে জনগণের ভোটের অধিকার ছিনিয়ে নিয়েছে। এখন সরকারকেই সংবিধান সংশোধন করে আবারো জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। এছাড়া আর কোনো পদ্ধতির সুযোগ নেই। সরকারকে একদলীয় বাকশালী মনোভাব পরিহার করে বহুদলীয় গণতন্ত্রের পথে চলতে হবে।’

চট্টগ্রামের বিভিন্ন থানায় বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলার নিন্দা জানিয়ে খসরু প্রশাসনকে বলেন, ‘নিরপেক্ষতা বজায় রেখে কাজ করুন। যে সরকারকে দেশের মানুষ ঘৃণাভরে প্রত্যাক্ষাণ করেছে তাদের আজ্ঞাবহ হয়ে কাজ করলে জনগণ তাদেরও প্রত্যাক্ষাণ করবে। এই অবৈধ সরকারের কোনো নির্দেশ না মেনে প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হয়ে কাজ করুন।’

বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক লায়ন আসলাম চৌধুরী বলেন, ‘স্বৈরাচারী সরকারের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতে হবে। আর এজন্য নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা জরুরি। অন্যথায় গণতন্ত্র বিপন্ন হবে।’

বিএনপি নেতা রফিক আহমেদের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা আলহাজ্ব এম এ আজিজ, জামায়াতে ইসলামীর থানা আমীর আবদুল হান্নান, কাউন্সিলর আরজু সাহাবুদ্দিন, কাউন্সিলর সেকান্দর হোসেন, কাজী বেলাল, মোশারফ হোসেন দীপ্তি, মনজুর আলম মঞ্জু প্রমুখ।

এদিকে টানা তিনদিনের হরতালে দেশব্যাপী নিহত ১৮ দলীয় জোট নেতাকর্মীদের স্মরণে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যেগে শুক্রবার বাদ জুমা জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদ প্রাঙ্গণে গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাজায় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, সিটি মেয়র এম মনজুর আলম মঞ্জু, সাবেক হুইপ সৈয়দ ওয়াহিদুল আলম, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মাহবুবুর রহমান শামীম, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি শামসুল আলম, সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান, সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন, কেন্দ্রীয় শ্রমিক দল নেতা এএম নাজিম উদ্দিন, জামায়াত ইসলামীর সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, বিএনপি নেতা জাহাঙ্গীর আলম, আলহাজ্ব এমএ আজিজ, আবুল হাশেম বক্কর প্রমুখ।