আনোয়ারার বৈরাগ ইউনিয়ন পরিষদের বাজেট ঘোষণা

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৬ জুন , ২০১৫ সময় ০৭:৫৭ অপরাহ্ণ

আনোয়ারাaইমরান এমি, আনোয়ারা :

স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আবুল হোসেন বলেছেন, নাগরিকদের উন্নত সেবা প্রদানে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার চর্চা করতে হবে। একটি ইউনিয়ন পরিষদ আন্তরিক হলে উন্নত নাগরিক সেবা প্রদানের জনগণের অত্যন্ত প্রিয় প্রতিষ্ঠানে পরিণত হতে পানে। তিনি আরো বলেন, আমাদের যা সম্পদ আছে তা সর্বোচ্চ ব্যবহারের মাধ্যমে দেশকে উন্নতির শিখরে নিয়ে যেতে হবে। তিনি গতকাল মঙ্গলবার (১৬ জুন) আনোয়ারা উপজেলার বৈরাগ ইউনিয়ন পরিষদের ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বৈরাগ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ানম্যান নোয়াব আলী আগামী অর্থ বছরের জন্য এক কোটি সাত লক্ষ ৪৭ হাজার ৮৪৮ টাকার বাজেট ঘোষণা করেন। বৈরাগ ইউপি চেয়ারম্যান নোয়াব আলীর সভাপতিত্বে এবং টিআইবি’র এরিয়া ম্যানেজার মোঃ জসিম উদ্দিন ও ওডেব এর কর্মসূচি সমন্বয়কারি লাবণ্য মুৎসুদ্দির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আনোয়ারা উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব তৌহিদুল হক চৌধুরী, আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, উপজেলা মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান মরিয়ম বেগম, সনাক-টিআইবি চট্টগ্রাম মহানগরেরস্থানীয় সরকার বিষয়ক উপ-কমিটির আহবায়ক প্রকৌশলী সুভাষ চন্দ্র বড়–য়া, এলজিএসপি’র জেলা সহায়ক এনামুল হক, মেরিন একাডেমির প্রশাসনিক কর্মকর্তা এম. আজিজুল হক, সনাক-টিআইবি চট্টগ্রাম মহানগরেরস্থানীয় সরকার বিষয়ক উপ-কমিটির আহবায়ক প্রকৌশলী সুভাষ চন্দ্র বড়–য়া, মুক্তিযুদ্ধা লিয়াকত আলী, জানে আলম বিএসসি, মো: আনোয়ার, আবদুল লতিফ ফারুকী প্রমুখ।
উল্লেখ্য এবছর বৈরাগ ইউনিয়ন পরিষদ ন’টি ওয়ার্ডে স্থানীয় জনগণের সরাসরি অংশগ্রহণে তাদের মতামতের ভিত্তিতে এবছরের বাজেট তৈরী করে এবং পরিষদের চুড়ান্ত বাজেটে পুনরায় জনগণের মতামত নেয়ার জন্য উক্ত উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানের আয়োজেন করে। দুর্নীতিবিরোধী সংগঠন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের পরামর্শ ও কারিগরি সহায়তায় এবছর বৈরাগ ইউনিয়ন পরিষদকে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা অনুষ্ঠানে সার্বিক সহাযোগিতা প্রদান করছেন সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) চট্টগ্রাম মহানগর এবং অর্গানাইজেশন ফর ওমেন্স ডেভেলপমেন্ট ইন বাংলাদেশ (ওডেব)।
এবছর বৈরাগ ইউনিয়ন পরিষদের বাজেটে যে সব খাতে উল্লেখযোগ্য আয় দেখানো হয়েছে তা হলো, নিজস্ব উৎস হতে আট লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা, এলজিএসপি থেকে থোক বরাদ্দ ২৮ লক্ষ টাকা, ভূমি হস্তান্তর কর (১%) ১৩ লক্ষ টাকা, টিআর-কাবিখা থেকে ৪১ লক্ষ টাকা, এডিপি প্রকল্প থেকে ৫ লক্ষ টাকা, অনুদান ১ লক্ষ টাকা। উল্লেখ যোগ্য ব্যয়ের খাত হিসেবে দেখানো হয়েছে, রাস্তা নির্মাণ ও মেরামত ১৩ লক্ষ টাকা, এলজিএসপি প্রকল্পের মাধ্যমে উন্নয়ন প্রকল্প ২০লক্ষ টাকা, নিজস্ব তহবিলের মাধ্যমে সচেতনতামূলক ও সহায়তা প্রকল্প ২ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা, নিজস্ব তহবিল থেকে অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প ৩ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা, টিআর-কাবিখার মাধ্যমে … টাকা। উল্লেখ্য এবছর প্রথম নারী উন্নয়নের জন্য ৫০ হাজার টাকা এবং তথ্য অধিকার, বাল্য বিবাহ, যৌতুক, নারী নির্যাতন, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা, নেশা ও মাদকাশক্তি ইত্যাদি বিষয়ে সচেতনতার্মলক কর্মকান্ডের জন ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। বাজেট বক্তব্যে ইউপি চেয়ারম্যান নোয়াব আলী বলেন, বৈরাগ একটি শিল্প এলাকা হলেও এখানে আশানুরুপ কর পাওয়া যায়না, কোরিয়ান ইপিজেড এ ইউনিয়নে হলেও এখনো তাদেরকে করের আওতায় আনা সম্ভব হয়নি। তিনি বৈরাগের সকল শিল্প প্রতিষ্ঠানকে করের আওতায় আনার জন্য জেলা প্রশাসকের সহায়তা কমনা করেন। অনুষ্ঠানে ইউনিয়নের নয় ওয়ার্ডের বিপুল সংখক নারীসহ কয়েকশ লোক অংশগ্রহণ করেন।