আনুষ্ঠানিকভাবে নাছিরকে প্রার্থী ঘোষণা

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২০ মার্চ , ২০১৫ সময় ১১:৫২ অপরাহ্ণ

nasir cccঅবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা এসেছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিনের নাম। শুক্রবার চট্টগ্রামের নেতাদের নিয়ে বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রী মেয়র প্রার্থী হিসেবে নাছিরের নাম ঘোষণা করেন।

যেটি গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারী বাসভবন গণভবনে দলের নীতি নির্ধারণী পর্যায়ের এক বৈঠকে চূড়ান্ত করা হয়।

শুক্রবার সন্ধ্যায় দীর্ঘ দেড় ঘন্টার বৈঠক শেষে আনুষ্ঠানিভাবে মেয়র পদে নাছিরের নাম ঘোষনা দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের এ নেতা।

আ জ ম নাছির বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামের সকল নেতার মতামত জেনেছেন। এরপর তিনি আমার নাম ঘোষণা করেছেন। তা উপস্থিত সকল নেতা সমর্থন করায় প্রধানমন্ত্রী আমাকে মেয়র পদে দলের পক্ষ থেকে সমর্থন দেওয়ার কথা জানান। এসময় তিনি সকলকে সিটি কর্পোরেশনের হারানো আসন পুন:রুদ্ধারে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।’

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রামের সাংসদ গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রিয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর, কেন্দ্রিয় প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদ, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আমিনুল ইসলাম আমিন, চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী, আ জ ম নাছির উদ্দিন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এম এ সালাম, দক্ষিণ জেলার সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, চট্টগ্রামের সাংসদ ও নগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ডা. আফসারুল আমীন, নগর কমিটির সহ-সভাপতি মাহতাব উদ্দিন  চৌধুরী, সাবেক সাংসদ ও সহ সভাপতি নুরুল ইসলাম বিএসসি, নগর কমিটির অর্থ সম্পাদক আবদুচ ছালাম।

চট্টগ্রামের বাইরে কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম ও আওয়ামী লীগের উপ প্রচার সম্পাদক অসীম কুমার উকিল বৈঠকে ছিলেন।

এদের মধ্যে মহিউদ্দিন চৌধুরী, আবদুচ ছালাম ও নুরুল ইসলাম বিএসসি মেয়র পদে প্রার্থীতার জন্য প্রচার প্রচারণা চালিয়ে আসছিলেন। এমনকি মহিউদ্দিন চৌধুরী নিজেকে নাগরিক কমিটির প্রার্থী ঘোষণা করে নির্বাচনী কার্যক্রমও শুরু করেছিলেন।

আশির দশকের শুরুতে চট্টগ্রাম ছাত্রলীগে সক্রিয় নাছির ১৯৭৮ ও ১৯৮১ সালে দুই দফায় নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ১৯৮১ ও ১৯৮৩ সালে দুইবার কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতিও হন।

১৯৮৫ সালে চট্টগ্রাম ব্রাদার্স ইউনিয়ন যাত্রা শুরু করলে এর প্র তিষ্ঠাকালীন সাধারণ সম্পাদক হন নাছির। ২০০৩ সালে সিজেকেএসের সহ-সভাপতি ও ২০১১ সালে সাধারণ সম্পাদক হন। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক হয়ে বর্তমানে সহ সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

একসময় আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু গ্রুপের নেতৃত্ব দিতেন এই আ জ ম নাছির। চট্টগ্রামে ক্যাডার রাজনীতিতে নাছিরের শক্ত অবস্থান ছিল। গডফাদার হিসেবেও তার পরিচিতি ছিল দেশে। এখন নিয়মিত নামাজ-রোজা ছাড়াও প্রতি সপ্তাহে নফল রোজা রাখছেন নাছির। গত বছর থেকে দলের নগর শাখার সাধারণ সম্পাদকের পদ পাওয়ার পর থেকে নিজস্ব বলয় ছেড়ে দলের মূল স্রোতের সঙ্গে তিনি রাজনীতি শুরু করেন।nasir ccc