আতাউর রহমান কায়সার ছিলেন মুজিব আদর্শেও অগ্রণী সৈনিক

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৪ অক্টোবর , ২০১৪ সময় ০৮:৫৫ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রাষ্ট্রদূত এবং মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক মরহুম আতাউর রহমান খান কায়সার স্মরণে চট্টগ্রাম আতাউর রহমান কায়সার ছিলেন মুজিব আদর্শেও অগ্রণী সৈনিকমহানগর মহিলা আওয়ামীলীগের স্মরণানুষ্ঠানে মরহুম আতাউর রহমান খান কায়সার ওয়াশিকা আয়েশা খান এমপি প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, আমার পিতার মতই জনকল্যাণমুখী রাজনীতিতে নিবেদিত হয়েছি। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নারী জাগরণের কর্মসূচি বাস্তবায়নে আমি ঘরে ঘরে যাব। ঘরে ঘরে মুজিবাদর্শের বার্তা পৌঁছে দেওয়ার মধ্যেই সমাজ থেকে নারী বিদ্বেষী শক্তিকে নির্মুৃল করা সম্ভব হবে। তিনি আরও বলেন বাংলাদেশ বিশ্বব্যাপী নারী নেতৃত্বের অহংকার মায়ের জাতি সমাজ সুশিক্ষিত নাগরিক তৈরির কারিগর। তাদের যথাযথ মর্যাদা দিতে বর্তমান সরকার প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যে যুগান্তকারী প্রদক্ষেপ নিয়েছে তা বাস্তবায়নে নারী-পুরুষ নির্বিশেষে আমাদেরকে একসাথে অর্পিত দায়িত্ব পালন করতে হবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মিসেস হাসিনা মহিউদ্দিন বলেন, আতারউর রহমান খান কায়সার ছিলেন মুজিব আদর্শেও অগ্রণী সৈনিক। আজীবন তিনি জিন মত ও পথের প্রতি একনিষ্ঠ থেকে দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করে গেছেন। লোভ, মোহ, বিভ্রান্তি তাঁর মধ্যে কখনো কাজ করেনি। কখনো আদর্শচ্যুত হননি তিনি। কায়সার ভাই সমাজের সম্ভ্রান্ত পরিবারের সন্তান হিসেবে নারী সমাজকে প্রগতির আলোক শিখায় প্রজ্জ্বলিত করার প্রেরণা আমাদেরকে দিয়ে গেছেন। আজ বাংলাদেশ সামনের দিকে এগুচ্ছে। অগ্রগামীতার এই কাফেলায় নারী বিজয়ী শক্তির প্রেরণা হিসেবে কাজ করে গেছে।
বাংলাদেশে মহিলা আওয়ামী লীগ চট্টগ্রাম মহানগরী শাখার উদ্যোগে গতকাল ১৪ অক্টোবর বিকেলে প্রয়াত নেতার চন্দনপুরাস্থ বাসভবনে আয়োজিত এক স্মরণানুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সাংগনিক সম্পাদিকা আঞ্জুমান আরা চৌধুরী আনজী ও মালেকা চৌধুরী সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন নিলু নাগ, নাজমা মাওলা, আবিদা আজাদ, ঝর্ণা বড়–য়া, রওশান আরা বেগম, আয়েশা আক্তার পান্না, মর্জিনা আক্তার লুসি ও ফাতেমা বেগম প্রমুখ।

(প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

আতারউর রহমান খান কায়সার ছিলেন একজন সৎ ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ

আতাউর রহমান খান কায়সার ছিলেন একজন পরিশীলিত সংস্কৃতিক মানুষ। বনেদি ও বিত্তবান পরিবারের সন্তান হয়েও তিনি যেমন ছিলেন একজন পুরোদস্তর আমজনতার মানুষ, তেমনি নিজের আত্মার খোরাক যোগাতে রচনা করতেন কবিতা। মন ও মননের চর্চায়ও তিনি ছিলেন তৎপর।
বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, চট্টগ্রাম মহানগর শাখার উদ্যোগে আতাউর রহমান খান কায়সার স্মরণসভায় বক্তাগণ এ কথা উল্লেখ করেন।
গতকাল ১৪ অক্টোবর বিকেল ৫টায় প্রয়াত নেতার চন্দপুরার বাসভবনে আয়োজিত এই স্মরণ সভায় সভাপতিত্ব করেন বেগম হাসিনা মহিউদ্দিন।
প্রধান অতিথি ছিলেন মরহুম আতাউর রহমান খান কায়সারের তনয়া ওয়াশিকা আয়েশা খান এমপি। আতাউর রহমান কায়সারের জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা করেন। বক্তব্য রাখেন মো: সেলিম, আলহাজ্ব এম.এ মোতালেব, আবু তাহের চিশ্তী, মো: আবদুল হক, নিলু নাগ, বিবেকানন্দ চৌধুরী, মুন্নি জাফর, রেভা বড়–য়া, জয়নাল উদ্দিন, মিলি চৌধুরী, মো: আবু ঈসা, নারায়ণ দাশ প্রমুখ।
সভায় বক্তাগণ বলেন, আতারউর রহমান খান কায়সার ছিলেন একজন সৎ ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ। প্রস্তুতি থেকে শুরু কওে, ৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধে তাঁর অসাধারণ ভূমিকা জাতি যুগ-যুগ ধরে স্মরণ করবে। এছাড়া ৭৫ পরবর্তী দৃঃসময়ে, সামরিক শাসনের যাঁতাকলে দেশ যখন ছিলো অন্ধকারাচ্ছন্ন, তখন তিনি মুবিজ আদর্শেও বাতিঘর হিসেবে কাজ করেন।