আটক ডাকাতকে ছিনিয়ে নিলেন ইউপি সদস্য

প্রকাশ:| বুধবার, ১৪ জুন , ২০১৭ সময় ০৯:৪৯ অপরাহ্ণ

পেকুয়ায় বারবাকিয়া-রাজাখালী সড়কে ডাকাতি, চালক আহত

পেকুয়া প্রতিনিধি

পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়া-রাজাখালী সড়কের নোয়াখালী পাড়া এলাকায় যাত্রীবাহি টমটম গাড়ি থামিয়ে ডাকাতি করেছে বলে অভিযোগ করেছেন চালক ও যাত্রীরা। এ সময় ডাকাতদল গাড়িতে থাকা যাত্রীদের কাছ থেকে নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি চালককেও হত্যার চেষ্টা চালায় বলে জানা গেছে। আহত চালক সদর ইউনিয়নের মইয়্যাদিয়া এলাকার আবদু জলিলের পুত্র আসাদুল ইসলাম (২৭)। স্থানীয়রা চালককে উদ্ধার করে পেকুয়া হাসপাতালে ভর্তি করায়।
ঘটনাটি ঘটেছে, ১৩ জুন রাত সাড়ে ১১টার দিকে বারবাকিয়া ইউনিয়নের নোয়াখালী পাড়ার মাস্টার জামালের বাড়ির পার্শ্ববর্তি এলাকায়।

স্থানীয়রা জুনাইদ নামের এক ডাকাতকে তাৎক্ষনিক পাকঁড়াও করে গণধোলাই দিয়ে আটক করে রাখলে পুলিশ আসার আগেই স্থানীয় ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নাসির উদ্দিন মিয়া তার দলবল নিয়ে এসে তাকে ছিনিয়ে নেই। ওই সময় ইদ্রিস নামের এক ব্যক্তি আহতকে উদ্ধার করতে আসলে তাকেও মারধর করা হয়। স্থানীয় ইউপি সদস্যের এমন ভুমিকায় এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। তবে ইউপি সদস্য নাসির উদ্দিন মিয়া জানান, ডাকাতির খবর পেয়ে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে যায়। এ সময় স্থানীয়রা এক ডাকাতকে গণধোলাই দিয়ে আহত করলে তাকে আমার জিম্মায় নিয়ে আসি। পরে তার ভাই মুবিনের জিম্মায় দিয়ে দিই। আটককৃত ডাকাতকে কেন পুলিশে দেননি প্রশ্ন করলে তিনি বলেন এলাকার লোক তাই।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক থানার উপ-পরিদর্শক বিপুল চন্দ্র রায় ঘটনাস্থলে গিয়ে আহত চালক ও স্থানীয় লোকদের সাথে বলেন। তিনি বলেন, এ ঘটনা গুরুত্বের সাথে তদন্ত করা হচ্ছে। ইউপি সদস্য ডাকাত সদস্যকে নিয়ে যাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন যারাই এ ঘটনায় জড়িত তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

 


আরোও সংবাদ