আটকে পড়েছে দ্য স্নো ড্রাগন আইসব্রেকার

প্রকাশ:| রবিবার, ২৯ ডিসেম্বর , ২০১৩ সময় ১০:১৬ অপরাহ্ণ

বড়দিন থেকে অ্যান্টার্কটিকায় আটকে পড়া গবেষণা জাহাজটিকে উদ্ধার করতে গেয়ে আটকে পড়েছে দ্য স্নো ড্রাগন আইসব্রেকার। ওই গবেষণা জাহাজে ৭৪ জন আরোহী রয়েছে। বরফ ভেঙে এগিয়ে যেতে গিয়ে আটকা পড়ে চীনের উদ্ধারকারী জাহাজ। মাত্র ১১ কিলোমিটার দূরত্ব থেকে ফিরে আসতে হয়েছে স্নো ড্রাগনকে। ফ্রান্সের অপর একটি জাহাজ উদ্ধার করতে গিয়ে ব্যর্থ হয়েছে বলে জানা গেছে। প্রবল বাতাসে জাহাজের চারপাশে বরফ এসে আটকে গেলে ২৫শে ডিসেম্বর ওই জাহাজটি আটকে যায়। অ্যান্টার্কটিকায় গবেষণাধর্মী সফরের আয়োজক অস্ট্রেলিয়ার এক অধ্যাপক এ তথ্য জানিয়েছেন। ইউটিউবে পোস্ট করা এক ভিডিওতে নিউ সাউথ ওয়েলস বিশ্ববিদ্যালয়ের জলাবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক অধ্যাপক ক্রিস টার্নি বলেন, আমরা চারদিকে বরফ দিয়ে পরিবেষ্টিত, কোনভাবেই বের হওয়া সম্ভব হচ্ছে না। তবে আরোহী যাত্রীরা প্রত্যেকে নিরাপদ আছেন এবং জাহাজের কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে তিনি উল্লেখ করেন। ওই জাহাজটিকে উদ্ধার করার জন্য তিনটি বরফ-কাটা জাহাজ এগিয়ে যায়। অস্ট্রেলিয়ার মেরিটাইম সেফটি অথরিটি একথা জানান। জাহাজে আটকে পড়া আরোহীদের মধ্যে আনুমানিক ৫০ জন বিজ্ঞানী এবং পর্যটক আছেন, যাদের অধিকাংশই অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক। আর ২০ জনের মতো জাহাজ কর্মী রয়েছেন, যাদের অধিকাংশ রাশিয়ান। নভেম্বরের ২৮ তারিখ জাহাজটি নিউজিল্যান্ড ছেড়ে যায়। বেসরকারি অর্থায়নে গবেষণা সফরটি আয়োজন করা হয়। অস্ট্রেলিয়ার খ্যাতিমান অনুসন্ধানী পর্যটক ডগলাস মসন-এর অ্যান্টার্কটিকা সফরের ১০০ বছরপূর্তিতে আয়োজন করা হয় গবেষণাধর্মী ওই ভ্রমণ।