আঞ্চলিক উন্নয়নে গণতন্ত্রে জোর দেয়ার আহ্বান বিএনপির

প্রকাশ:| রবিবার, ৭ জুন , ২০১৫ সময় ০৭:০৮ অপরাহ্ণ

বেগম খালেদা জিয়া-নরেন্দ্র মোদিঢাকা সফররত ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠকে বিএনপি দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছে। তারা বলেছেন, দেশে গণতন্ত্র না থাকলে কোনো দেশেই উন্নয়ন টেকসই হবে না। উন্নয়নকে টেকসই করতে গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতার রক্ষার ওপর জোর দিয়েছেন তারা।

মোদির সঙ্গে খালেদা জিয়ার সাক্ষাতের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় এসব জানান বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান।

তিনি বলেন, ‘বৈঠকে আমাদের নেত্রী তার বক্তব্য উপস্থাপন করেছেন। অন্যদিকে মোদি তার বক্তব্য দিয়েছেন। অত্যন্ত চমৎকার পরিবেশে পারস্পরিক স্বার্থে খোলা মনে আলোচনা হয়েছে। আলোচনায় যেসব বিষয় উঠে এসেছে তার মধ্যে অন্যতম হলো দু’দেশের মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে তোলা। সেটা করতে হলে দুদেশের মানুষের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নের বিষয়ে জোর দিতে হবে।’

মঈন খান জানান, পারস্পরিক সম্পর্ক, সার্কভুক্ত দক্ষিণ এশীয় দেশের উন্নয়ন এবং দেশে বর্তমান গণতন্ত্রের পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছেন তারা।

তিনি বলেন, ‘আমরা শুধু দ্বিপাক্ষীয় সম্পর্ক নয় দুই দেশের মানুষের মধ্যে সম্পর্কের ওপর জোর দিয়েছি। আমরা মনে করি, দীর্ঘস্থায়ী আস্থার সম্পর্ক ধরে রাখতে হলে দুই দেশের মানুষের সম্পর্ক জোরদার করতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘এছাড়া বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি, গণতন্ত্রের অনুপস্থিতি বিষয়টিও তাকে অবহিত করা হয়েছে। নরেন্দ্র মোদি আঞ্চলিক উন্নয়নে জোর দিচ্ছেন। যদি টেকসই উন্নয়ন করতে হয় তাহলে অবশ্যই সেটা গণতান্ত্রিক হতে হবে। যদি না গণতন্ত্র থাকে, যদি না বিচারবিভাগ স্বাধীন হয়, যদি না নির্বাচন কমিশন স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারে, যদি না মানুষ স্বাধীনভাবে তাদের মত প্রকাশ করতে পারে তাহলে টেকসই উন্নয়ন সম্ভব নয়। আমরা এসব বিষয়েই মোদির দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি।’

মঈন খান জানান, বর্তমানে দেশে জনপ্রতিনিধিত্বহীন সরকার ক্ষমতায় বসে আছে বলে মোদির কাছে অভিযোগ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন। একইসঙ্গে এ অভিযোগও করা হয়েছে, বিরোধী দলের উপর অত্যাচার-অনাচার করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের গণতন্ত্রের অনুপস্থিতি আর গনতন্ত্রের অস্তিত্ব না থাকলে দেশের উন্নয়ণ সম্ভব হবে না এসব বিষয়ে মোদির সঙ্গে তাদের কথা হয়। বিরোধী দলের উপর অত্যাচার অনাচার করা হচ্ছে বলেও মোদিকে অবহিত করা হয়েছে।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিবসহ দলটির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা’ মামলার বিয়ষটিও বৈঠকে আসে বলে জানান মঈন।

বিএনপিকে নিয়ে মোদি কিছু বলেছেন কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মোদি সংবাদ সম্মেলন করলে তার কাছ থেকে জেনে নেবেন।

বৈঠকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, তরিকুল ইসলাম ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সাবিহ উদ্দিন আহমেদ ও রিয়াজ রহমান উপস্থিত ছিলেন।