আচমকা উপড়ে পড়ে একটি বড় শিরিষ গাছ

প্রকাশ:| শনিবার, ২৬ মার্চ , ২০১৬ সময় ১১:২৭ অপরাহ্ণ

ঘড়ির কাঁটা তখন দুপুর ১২টা ৩৭মিনিটের ঘরে। নগরীর এএস খালেদ সড়কের দুই লেইনের ওপর আচমকা উপড়ে পড়ে একটি বড় শিরিষ গাছ। সড়কের ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউটের মুখেই ঘটে এ ঘটনা। তবে ভাগ্য ভালো। ব্যস্ততম ওই সড়কে যেনো ওই মুহূর্তের জন্য থমকে ছিল গাড়ি চলাচল আর পথচারীদের আনাগোণা। তা না হলে ক্ষয়ক্ষতি না হওয়াটা অলৌকিকই বটে।

গাছ পড়ার ফলে রাস্তার একপাশে গাড়ি চলাচল বন্ধ রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শিরিষ গাছটির গোড়া চট্টগ্রাম ক্লাবের সীমানা প্রাচীরের সঙ্গে লাগোয়া ছিল। বর্তমানে ক্লাবের সীমানা প্রাচীর নির্মাণ কাজ চলছে। এর ফলে গাছটির গোঁড়ার মাটি সরে যাওয়ায় সেটি রাস্তার ওপর উপড়ে পড়ে।
আচমকা উপড়ে পড়ে একটি বড় শিরিষ গাছ
শনিবার দুপুর একটার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, সড়কের একপাশের ওপর উপড়ে পড়া গাছের অংশ কেটে সরিয়ে ফেলা হয়েছে, ফলে ওই পাশে চলছে গাড়ি চলাচল। তবে অন্যপাশটা এখনও বন্ধ। শ্রমিকরা সড়কের অন্যপাশের ওপর পড়ে থাকা গাছের অংশ কাটতে ব্যস্ত রয়েছে।

পথচারী সাইমুন বলেন, ‘একটু দূর থেকে দেখলাম মড়মড়িয়ে গাছটি রাস্তার ওপর পড়ে যাচ্ছে। তবে ওই সময় রাস্তায় গাড়ি ছিল না, মানুষজনও কম ছিল। ভাগ্য ভালো, বন্ধের দিন বলে গাড়ি আর মানুষ কম ছিল। না হয় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারতো।’

রাস্তার ওপর পড়ে থাকা গাছটি কাটার কাজ তদারকি করছিলেন চট্টগ্রাম ক্লাবের কর্মকর্তা মোহাম্মদ আজিজ। তিনি বলেন, ‘রাস্তার ওপর গাছ উপড়ে পড়লেও কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। আমরা দ্রুত রাস্তার ওপর থেকে গাছটি সরিয়ে ফেলার চেষ্টা করছি। এরপর দুই পাশেই গাড়ি চলাচল সচল হবে।’

গত ৭ মার্চ রাজধানীর ধানমণ্ডি এলাকায় মাথায় কৃষ্ণচূড়া গাছ ভেঙে পড়ে গুণী পরিচালক খালিদ মাহমুদ মিঠুর মুত্যু হয়।