আগে পশ্চিমবঙ্গ পরে বাংলাদেশ : মমতা

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ , ২০১৭ সময় ১০:৪৩ অপরাহ্ণ

রাজ্যের স্বার্থে যা করার আমি তাই করবো। আমি বাংলাদেশকে ভালবাসি। বাংলাদেশকে যতটা সাহায্য করার দরকার করবো কিন্তু সেটা রাজ্যকে বাঁচিয়ে। তিস্তা চুক্তি প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে একথা বলেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

 

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কলকাতার টিভি চ্যানেল এবিপি আনন্দকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে মমতা জানান, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আমার ব্যাক্তিগত সম্পর্ক খুব ভাল, রাজনৈতিক সম্পর্কও খুব ভাল। আর সে কারণেই ৬৬ বছরের পুরোনো সমস্যা স্থলসীমান্ত সমস্যা মিটিয়ে ফেলেছি। কিন্তু সব কিছুতো আর পাওয়া যায় না। যেখানে রাজ্যের স্বার্থ রয়েছে সেখানে রাজ্যকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। কারণ আমি যেহেতু এজায়গায় (মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্বে) আছি। মানুষতো আমাকে ধরবে। বাংলার স্বার্থে আমি মানুষের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা বা বেইমানি করতে পারি না। কিন্তু যেখানে আমি পারবো এবং দুই দেশেরই ভাল হবে সেটা আমি অবশ্যই করবো।

 

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারকে তিস্তাসহ অন্যান্য বিষয়ে না জানানোর জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের উপর অভিযোগ এনে তিনি বলেন, ওরা (কেন্দ্র) আমাদেরকে না জানিয়ে ইচ্ছেমতো সবকিছু করে। রাজ্যকে জানানোর প্রয়োজন বলেই মনে করে না।

 

মমতা বলেন, আমি তো শুনেছি ২৫মে বাংলাদেশে গিয়ে তিস্তা নিয়ে একটি চুক্তিও স্বাক্ষরিত হবে। কিন্তু আমি তার কিছুই জানি না। আমি পত্রিকাতেই দেখেছি যে ওরা (হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল) আসছেন। কিন্তু আমি এখনো পর্যন্ত সরকারি তরফে কোন চিঠি পাই নি।

 

আগামী মাসের ৭ তারিখে ভারত সফরে যাবেন প্রধানমন্ত্রী। এই সফরকালে ভারতের সঙ্গে কয়েকটি চুক্তি ও সমঝোতা স্বাক্ষর হতে পারে। যদিও সবচেয়ে বেশি নজর থাকবে অমীমাংসিত তিস্তা পানি বন্টন চুক্তির বিষয়টি নিয়ে। কিন্তু সেই সফরের আগে তিস্তা নিয়ে মমতা যেভাবে তার অবস্থান স্পষ্ট করলেন তাতে এই চুক্তির বিষয়ে খুব একটা অগ্রগতি হবে না বলেই অভিমত বিশেষজ্ঞ মহলের।