আগস্টে জাতীয় কনভেনশনের ঘোষণা দিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চ

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২২ জুলাই , ২০১৬ সময় ১১:০০ অপরাহ্ণ

সন্ত্রাসী ও জঙ্গী হামলার প্রতিবাদে শাহবাগে গণমিছিল করেছে গণজাগরণ মঞ্চ। গতকাল শুক্রবার বিকেলে এ কর্মসূচি পালন করে মঞ্চের কর্মীরা। এসময় সারাদেশের সকল সামাজিক-সাংস্কৃতিক-রাজনৈতিক, ছাত্র-যুব-পেশাজীবী সংগঠনসহ সকলকে নিয়ে জঙ্গিবাদ সমস্যায় করণীয় খুঁজতে আগামী আগস্টে জাতীয় কনভেনশনের ঘোষণা দিয়েছে মঞ্চ। গণমিছিল কর্মসূচিতে গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার বলেন, নিব্রাস, রোহানদের মতো জঙ্গিদের যারা তৈরি করেছে, তাদের বিরুদ্ধে এখনো কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। জঙ্গিবাদের আশ্রয়-প্রশ্রয়দাতাদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ না করে শুধু স্থাপনা উচ্ছেদে ব্যস্ত থেকে জঙ্গিবাদ দমন করা যাবে না। তিনি বলেন, দেশব্যাপী জঙ্গি হামলার বিরুদ্ধে আমরা ধারাবাহিক কর্মসূচি পালন করে আসছি। বারবার রাজনৈতিক দলগুলোকে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যমতে পৌঁছার আহ্বান জানানো হলেও তারা একেকজন একেক জায়গায় বসে শুধু বিবৃতি দিয়ে যাচ্ছেন। ফটোসেশন আর বিবৃতিবাজি করে জঙ্গিবাদ দমন সম্ভব না। ইমরান এইচ সরকার বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে জাতীয় ঐক্যের কথা বলা হলেও তা কেবল বিবৃতিতেই সীমাবদ্ধ রয়েছে, সারাদেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করার কোনো পদক্ষেপ নিতে দেখা যাচ্ছেনা। জঙ্গিবাদের এই সংকট মোকাবেলায় সারাদেশের সকল রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এ সমস্যার সমাধান খুঁজতে হবে। তিনি বলেন, এ জন্য আমরা সকলকে নিয়ে আগামী আগস্ট মাসজুড়ে জাতীয় কনভেশন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় সকলের পরিকল্পনা ও মতামত সমন্বয়ের মাধ্যমে জঙ্গিবাদবিরোধী রোডম্যাপ তৈরি করবো। কনভেনশন থেকেই আগামীদিনের দীর্ঘমেয়াদি কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে। যার মাধ্যমে জঙ্গিবাদের সংকট নিরসনে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা সম্ভব হবে বলে আমরা আশা করছি। তিনি আরো বলেন, জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক ও উস্কানিদাতাদের সামাজিকভাবে বয়কট করে সারাদেশের সকল শ্রেণি-পেশা এবং মতের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। একে অন্যের প্রতি কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি বন্ধ করে জাতীয় স্বার্থকে প্রাধান্য দিতে হবে। জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে এখনই সচেতন না হলে আমাদেরকেও ইরাক-সিরিয়ার মতো পরিণতি ভোগ করতে হবে। পরে তুমুল বৃষ্টির মধ্যে জঙ্গিবাদ বিরোধী গণমিছিলটি শাহবাগ থেকে শুরু হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি ঘুরে আবার শাহবাগে ফিরে আসে।