আওয়ামী লীগের ৯ নম্বর উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ডের সম্মেলন সংঘর্ষে পন্ড

প্রকাশ:| সোমবার, ২২ জুলাই , ২০১৩ সময় ১১:৩০ অপরাহ্ণ

নগরীর পাহাড়তলী থানার একে খান মোড়ে সংঘর্ষের পর আওয়ামী লীগের ৯ নম্বর উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড কমিটির সম্মেলনal faag পন্ড হয়ে গেছে।

এসময় সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম সুজনসহ জ্যেষ্ঠ্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, নগর আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের উপস্থিতিতে রাত ৯টার দিকে নগরীর একে খান মোড়ে মেহেদি কমিউনিটি সেন্টারে ৯ নম্বর উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ডের সম্মেলনের কার্যক্রম শুরু হয়।

সম্মেলন চলাকালে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের দাবিদার দু’গ্র“পের নেতাকর্মীদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি শ্লোগানে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এর এক পর্যায়ে দু’পে মারামারি এবং চেয়ার ছোঁড়াছুঁড়ি শুরু হয়।

কিছু নেতাকর্মী শ্লোগান দিতে দিতে রাস্তায় বের হয়ে সড়ক অবরোধের চেষ্টা করেন। তবে পুলিশের বাধায় তারা সরে যান।

পাল্টাপাল্টি সংঘর্ষের মধ্যে কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীসহ জ্যেষ্ঠ্য নেতারা। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করেন এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

নগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম সুজন বলেন, ‘আওয়ামী লীগের নেতাদের মধ্যে কোন সমস্যা ছিলনা। যুবলীগ-ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মী ভেতরে ঢুকে উত্তেজিত হয়ে পড়লে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়। এরপর সভাপতি (এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী) সম্মেলন স্থগিত ঘোষণা করেছেন।’

সম্মেলনের তারিখ পরে নির্ধারণ করা হবে বলে জানান খোরশেদ আলম সুজন।

ঘটনাস্থলে থানা নগর পুলিশের ডবলমুরিং জোনের সহকারী কমিশনার উ খ্য সিং বাংলানিউজকে বলেন, ‘উত্তেজনার খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। বিচ্ছিন্নভাবে কিছু মারামারি হলেও আমাদেও হস্তেেপ দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।’


আরোও সংবাদ