আইনজীবীকে মেরে ফেলার হুমকি

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি , ২০১৮ সময় ০৭:৪৩ অপরাহ্ণ

সংসারে নির্যাতনের শিকার এক মায়ের পক্ষে মামলা পরিচালনা করায় আইনজীবীকে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।  ওই মায়ের চার ছেলে ও তিন পুত্রবধূসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেছেন ওই আইনজীবী।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম মাসুদ পারভেজের আদালতে মামলাটি দায়ের হয়েছে।  আদালত ৮ জনের বিরুদ্ধে সমন জারি করেছেন।

হুমকি পাওয়া ওই আইনজীবী হলেন এস এইচ এম হাবিবুর রহমান আজাদ।  নগরীর পতেঙ্গা থানার মুসলিমাবাদ এলাকার মাফিয়া খাতুন নামে এক বৃদ্ধার পক্ষে তিনি মামলা পরিচালনা করছেন।

মাফিয়ার চার সন্তান হলেন- মনির হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, মুক্তার হোসেন এবং ‍জাকির হোসেন।  তিন পুত্রবধূ হলেন নিশান, সানু ও আইনুন বেগম।  আসামি হয়েছেন মাফিয়ার প্রতিবেশী ফাতেমা তুজ জোহরা নামের এক নারীও।

আজাদ বলেন, মাফিয়া তার পালিত মেয়েকে পতেঙ্গায় বসতঘরের পাশে পৌনে এক গণ্ডা সম্পত্তি দান করেছেন।  এটা নিয়ে তার ঔরসজাত সন্তানদের সঙ্গে বিরোধ হয়।  ছেলে এবং তাদের স্ত্রীরা মিলে মাফিয়াকে মারধর করে ঘর থেকে বের করে দেয়।

আজাদ জানান, নির্যাতনের ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালের ৬ নভেম্বর একটি মামলা দায়ের হয়।  ওই মামলায় চার ছেলে ও তিন স্ত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়।  পরে আবারও নির্যাতন করে মাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়ার অভিযোগে গত ৯ জানুয়ারি আরও একটি মামলা দায়ের হয় আদালতে।  ওই মামলায় প্রতিবেশি ফাতেমাসহ আটজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়। একটি মামলায় ছেলে দেলোয়ার কিছুদিন জেলহাজতেও ছিলেন। দুইটি মামলা পরিচালনা করেন আজাদ।

‘আমাকে মামলা পরিচালনা থেকে বিরত থাকতে ছেলেরা বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছিল।  গত ১৫ ফেব্রুয়ারি ছেলেরা সরাসরি আমার চেম্বার দোয়েল ভবনের ১২৪ নম্বর কক্ষে এসে মেরে ফেলার হুমকি দেন।  আমি তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি আইনজীবী সমিতিকে অবহিত করি।  সমিতির পরামর্শে আমি মামলা করেছি। ’

দণ্ডবিধির ৫০৬, ৪০৮ ও ৩৪ ধারায় দায়ের হওয়া মামলাটি আমলে নিয়ে মহানগর হাকিম আসামিদের আদালতে হাজিরের জন্য সমন দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আজাদ।