‘অভিনেত্রী’ নিপুণ এবং জন্মদিন

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৯ জুন , ২০১৭ সময় ০৭:৩১ অপরাহ্ণ

মাকে সঙ্গে নিয়ে প্রথম রোজার দিন সিঙ্গাপুরে ঘুরতে গিয়েছিলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা নিপুণ। মনের মতো ঘুরে বেড়ানোর পর বৃহস্পতিবার সকালেই নিপুণ সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফেরেন।

শুক্রবার থেকে তিনি সেজানের নির্দেশনায় একটি ঈদ বিশেষ নাটকের শুটিংয়ে অংশ নেবেন। নাটকটিতে তার বিপরীতে রয়েছেন মাহফুজ।

এদিকে এবারের ঈদে সেজানের নাটক ছাড়াও সকাল আহমেদের নির্দেশনায় ‘অভিনেত্রী’ নাটকে অভিনয় করেছেন নিপুণ। এতে তার বিপরীতে আছেন আনিসুর রহমান মিলন।

এবারের ঈদে এই দুটি নাটকেই দেখা যাবে নিপুণকে। পাশাপাশি শিগগিরই নিপুণ উত্তম আকাশের নির্দেশনায় শুরু করতে যাচ্ছেন নতুন চলচ্চিত্র ‘ধুসর কুয়াশা’র কাজ। বলা যায়, প্রায় দুই বছর পর নতুন কোনো চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন নিপুণ।

২০১৬ সালের ৩ জানুয়ারি থেকে নিপুণ একজন ব্যবসায়ী হিসেবে নিজেকে দাঁড় করানোর চেষ্টা করছেন। তার সেই চেষ্টার ফসল হিসেবে আজ তিনি একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী। যে কারণে চলচ্চিত্রের কাজ থেকে তাকে ব্যবসাতেই বেশি মনোযোগ দিতে হচ্ছে।

নিপুণের ভাষায় অনেকটা ভবিষ্যত নিরাপত্তার কথা ভেবেই তিনি ব্যবসায়ী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা করছেন। ২০১৬ সালের ৩ জানুয়ারি থেকে রাজধানীর বনানীতে তিনি সৌন্দর্য্যচর্চা বিষয়ক প্রতিষ্ঠান ‘টিউলিপ নেইলস অ্যান্ড স্পা’র যাত্রা শুরু করেছেন। বিগত ১৫ মাসে প্রতিষ্ঠানটি এরইমধ্যে বেশ সফলতা পেয়েছে। আর তাতে ভীষণ আনন্দিত নিপুণ।

এদিকে শুক্রবার নিপুণের জন্মদিন। জন্মদিন হলেও তিনি নাটকের শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকবেন। যে কারণে জন্মদিনে বিশেষ আয়োজনের তেমন কোনো সুযোগ না থাকলেও নিপুণ চেষ্টা করছেন ছোট্ট একটি পার্টি দেবার। শেষ পর্যন্ত তা পারেন কি-না তা নিয়ে একটু দুঃশ্চিন্তাতেই আছেন তিনি।

ঈদের কাজ এবং জন্মদিন প্রসঙ্গে নিপুণ বলেন, ঈদে যে দুটি কাজ করছি তারমধ্যে অভিনেত্রী নাটকের গল্পটা এককথায় আমার কাছে দারুণ লেগেছে। কারণ এই নাটকের গল্পটি অসাধারণ। বলা যায় আমাকে ঘিরেই নাটকের গল্প এগিয়ে গেছে। তাই এই নাটকটি নিয়েই আমি বেশি আশাবাদী। পাশাপাশি আমার জন্মদিন, সবার কাছে দোয়া চাই যেন আল্লাহর রহমতে সবসময় সুস্থ থাকি, ভালো থাকি। আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটির জন্যও দোয়া চাই, যেন এর হাত ধরেই আগামীর পথ চলতে পারি।

২০০৭ সালে শাহআলম কিরণ পরিচালিত ‘সাজঘর’ এবং ২০১০ সালে মোহাম্মদ হোসেন পরিচালিত ‘চাঁদের মতো বউ’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভুষিত হন।