অবৈধ পন্থায় ভর্তি পরীক্ষা: ৫ শিক্ষার্থী আটক হয়েছেন

প্রকাশ:| রবিবার, ২৯ অক্টোবর , ২০১৭ সময় ০৯:৫৩ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ‘এ’ ইউনিটে অবৈধ পন্থায় (বিজ্ঞান অনুষদ) স্নাতক ভর্তি পরীক্ষা দিতে এসে ৫ শিক্ষার্থী আটক হয়েছেন। তার আগে দুজন আটক হয়েছেন, যারা ওই পাঁচ শিক্ষার্থীকে জালিয়াতির মাধ্যমে চান্স পাইয়ে দেওয়ার কথা দিয়েছিল।

রোববার (২৯ অক্টোবর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্র থেকে ওই ৫জন ও আগের রাতে অপর দুজনকে নিজ বাসা থেকে আটক করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিস সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জালিয়াতি চক্রের সদস্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের ২০১২-১৩ সেশনের শিক্ষার্থী মো.রায়হানুল হক ও তার সহপাঠী একই বর্ষের মো.শহিদুল্লাহকে আটক করা হয়। পরে তাদের কাছে থাকা মোবাইল ফোন জব্দ করে রাখা হয়।

রোববার সকালে পরীক্ষা শুরু হওয়ার আগে মো.ফরহাদ, সাইদ বিন কবির (বাড়ি টাঙ্গাইল), মুশফিকুর সালেহীন (বাড়ি মানকিগঞ্জ), মিজানুর রহমান (নোয়াখালী) ও তুহিন (চট্টগ্রাম কলেজের পরিসংখ্যান বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী) জব্দ করা মোবাইল ফোনগুলোতে কল করে। এসময় প্রক্টরিয়ার বডির কয়েকজন সদস্য তাদের সঙ্গে কলের সূত্র ধরে যোগাযোগ করে। পরে ওই পাঁচ শিক্ষার্থীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

ওই পাঁচ শিক্ষার্থী স্বীকার করেছে টাকার বিনিময়ে অবৈধ উপায়ে জালিয়াতি চক্রের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই দুই শিক্ষার্থী চান্স পাইয়ে দেবে।আটক সাতজনকে হাটহাজারী থানায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর নিয়াজ মোরশেদ বলেন, বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই দুই শিক্ষার্থী জালিয়াতি চক্রের সদস্য। তাদের আটক করে মোবাইল জব্দ করার পর আজ পরীক্ষার আগে ওই পাঁচ শিক্ষার্থী তাদের মুঠোফোনে যোগাযোগ করে। পরে আমরা গিয়ে তাদেরও আটক করি। তারা কীভাবে প্রতারণার জড়িত ছিল তা পুলিশ বের করবে। ওই সাতজনকে হাটহাজারী থানায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।’