অবশেষে সরকারি হল উখিয়ার বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মহিলা কলেজ

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| বুধবার, ১০ অক্টোবর , ২০১৮ সময় ০৭:০০ অপরাহ্ণ

কায়সার হামিদ মানিক,উখিয়া।
অবশেষে সীমান্ত জনপদের নারীদের উচ্চ শিক্ষার জন্য উখিয়া-টেকনাফের একমাত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিব মহিলা কলেজকে সরকারি করা হয়েছে।
বুধবার (৯ অক্টোবর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।
বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিব মহিলা কলেজের দাতা ও ইসলামের ইতিহাসের প্রভাষক অধ্যাপক হুমায়ুন কবির চেীধুরী বলেন, দীঘদিন পর সরকারিকরণ হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানাই।
উখিয়ার বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিব মহিলা কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ হামিদুল হক চেীধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনিও সরকারিকরণের সত্যতা নিশ্চিত করেন।
৯ অক্টোবর সরকারি আদেশ (জিও) জারি হলেও ৭ অক্টোবর থেকে তা কার্যকর হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপসচিব মোহাম্মদ রাশেদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়েছে, সরকারি কলেজ শিক্ষক ও কর্মচারী আত্তীকরণ বিধিমালা ২০১৮ এর আলোকে সরকারি করা হয়েছে।
১৯৯৯ সালে উখিয়ায় প্রতিষ্ঠিত হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মীনি বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজ। দীর্ঘদিন পরে কলেজটি সরকারিকরণ হওয়ায় স্থানীয়দের মাঝে খুশির আমেজ বিরাজ করছে।
উখিয়া বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেচ্ছা মুজিব মহিলা কলেজকে সরকারিকরণের ঘোষণা দেয়ায় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন স্থানীয়রা।
গত ২ আগস্ট প্রধানমন্ত্রীর চুড়ান্ত অনুমোদনের জন্য ২৭১টি কলেজের সার-সংক্ষেপ প্রেরণ করে মন্ত্রণালয়। পরে গত ৮ আগস্ট চুড়ান্তভাবে সরকারিকরণের অনুমোদন দেন প্রধানমন্ত্রী। সেই তালিকায় কক্সবাজারের পাঁচটি কলেজের নাম আসলেও তালিকা থেকে বাদ পড়ে যায় উখিয়া বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজ। এতে করে স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছিল। আর এই নিয়ে চট্টগ্রামের জনপ্রিয় অনলাইন পোর্টাল সিভয়েস ডটকমে ‘প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরও সরকারিকরণ হয়নি উখিয়া বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজ’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছিল।
উল্লেখ্য, ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৩ সালের উখিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠের জনসভায় দেয়া বক্তব্যে এমপি বদি কলেজটিকে সরকারিকরণের দাবি জানিয়েছিলেন।