অফিসে অনেক বেশি কাজ সারতে কিছু টিপ্‌স

প্রকাশ:| বুধবার, ২৮ জুন , ২০১৭ সময় ১১:৫৮ অপরাহ্ণ

সাধারণত কর্মজীবী নারী-পুরুষদের দিনের অনেকটা সময়ই অফিসে কাটাতে হয়। আর অফিস মানে নিজের ডেস্কে বসে ব্যস্ত সময় পার করা। কিন্তু সব সময় কি আর অফিসের কাজে মন বসে? মাঝে মাঝে এক ঘণ্টার কাজ করতে তিন ঘণ্টাও লেগে যায়! আবার ঘন ঘনই কাজ-কর্মে ভুল হয়। অবশ্য অনেকেই এসব সমস্যার মধ্য দিয়ে যান। কিন্তু সমস্যার সমাধানটা তো হতে হবে।

অফিসের সময়টা সাধারণত আমাদের নিজের ডেস্কে কাটাতে হয়। আর ডেস্কের জিনিসগুলো এলোমেলো ভাবে রাখা থাকলেই কাজ-কর্মে ভ্যাঘাত ঘটে। মনকেও শান্ত রাখা সম্ভব হয় না। তাই ডেস্কটা একটু গুছিয়ে রাখুন। দেখবেন একেক দিনে অনেক বেশি কাজ সারতে পারছেন। আজ এ বিষয়েই রইল কিছু টিপ্‌স।

ফাইল-ফোল্ডার সাজিয়ে রাখুন
সবরকম নথিপত্র জড়ো করে প্রথমে দরকার অনুযায়ী ভাগ করে রাখুন। ছোট ছোট অর্গানাইজেশন বক্স কিনতে পারেন। সেগুলোয় ফাইলগুলো গুছিয়ে রাখলে অনেক বেশি পরিষ্কার দেখতে লাগবে। এই বাক্সগুলো কেনার সময় যে কোনও একটা রং অথবা নির্দিষ্ট থিম মাথায় রেখে সেইমতো প্যাটার্নের কিনুন।

খুব বেশি স্টেশনারি রাখবেন না
অনেকেই ডেস্কে বড্ড বেশি স্টেশনারি জমিয়ে রাখেন। এতে বিভ্রান্তি বাড়ে। একটা টু-ডু লিস্ট, কয়েকটা পোস্ট ইট আর নিজের প্ল্যানারটা রাখলেই চলে। এখন অনেকেই সব জরুরি জিনিস ডিজিটালি নোট করেন। স্মার্ট ফোন, গুগ্‌ল ক্যালেন্ডার তো রয়েছেই আপনাকে কোনো ইভেন্টের কথা মনে করিয়ে দেয়ার জন্য। সেগুলো ব্যবহার করুন। তবে এমন জায়গায় তালিকাটা রাখবেন, যাতে চোখের সামনে দেখতে পান। যে স্টেশনারি ব্যবহার করবেন, সেগুলো সাদামাঠা না কিনে যদি বেশ কিউট রংবেরঙের কিনতে পারেন, তাহলে মন ভালো থাকবে।


শো-পিস খুব বেশি রাখবেন না
একসঙ্গে খুব বেশি শো-পিস রাখলে ডেস্ক গুছিয়ে রাখা সম্ভব নয়। কয়েকটা পছন্দের জিনিস রাখতেই পারেন। যেমন সহকর্মীদের দেয়া উপহার, প্রিয়জনদের ছবি ইত্যাদি। যে জিনিসগুলো দেখলে আপনার মন খুশিতে ভরে ওঠে, কোনো সুন্দর স্মৃতি মনে পড়ে যায়, সেগুলোই শুধু রাখুন।

ডেস্কটপের উপরের জায়গাটায় নজর দিন
আপনার ডেস্কটপের উপরের জায়গাটার দিকেও একটু নজর দিন। যাদের ডেস্কে অনেকটা জায়গা থাকে, তারা এই জায়গাটা সাজাতে পারেন। একটা সফ্ট বোর্ড রাখা থাকলে নানা রকম ছবি আর লেখার কোলাজ করতে পারেন। কোনো রকম নতুন ভাবনা মাথায় এলে নোট করে রাখারও ভাল উপায় সফ্ট বোর্ড বা হোয়াইট বোর্ড। আরও বেশি জায়গা থাকলে কোনো প্রিয় উদ্ধৃতি প্রিন্ট আউট নিয়ে ফ্রেম করে রাখতে পারেন। মোটিভেশনাল কোটও রাখা ভালো।

রিল্যাক্স করার অবকাশ রাখুন
ডেস্কে এমন কিছু রাখতে হবে, যা দেখে আপনার স্ট্রেস কমে যাবে। ছোট ছোট ইনডোর প্লান্ট রাখা খুব কার্যকরী। সবুজ দেখলে মন শান্ত হয়। যদি আসল গাছ রাখতে অসুবিধে হয়, কিছু ঝুটো ক্যাকটাসও রাখতে পারেন। আর হ্যাঁ, ডেস্কে খুব বেশি চার্জার বা ইলেকট্রনিক তারের জঞ্জাল বানাবেন না। যতটা পারবেন, সব গুছিয়ে রাখুন।