কোন অপশক্তি বিভক্ত করতে পারবে না-মেয়র নাছির

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন , ২০১৫ সময় ০৯:৪৭ অপরাহ্ণ

কোন অশশক্তি
চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, সংগঠনের তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের আন্দোলন ও ভূমিকা মূল্যায়ন করে তাদেরকেই নেতৃত্বের চালিকা শক্তি হিসেবে এগিয়ে নেয়া হবে। তিনি আরো বলেন, পদ-পদবী পেয়ে অনেক নেতা বিগত সংসদ ও সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মাঠে ছিলেন না। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ নেতৃত্ব তাদেরকে চিহ্নিত করেছে। আমিও সংগঠনের সভাপতির সাথে বসে ঠিক করবো আজ যারা দলের বোঝা তাদের সরিয়ে দিয়ে ওয়ার্ড ও থানা ভিত্তিক কর্মঠ ও পরিচ্ছন্ন নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করবো। এ প্রসঙ্গে তিনি উল্লেখ করে বলেন, প্রতিটি ওয়ার্ডের সাংগঠনিক ও সম্প্রতি সমাপ্ত চসিক নির্বাচনে ওয়ার্ড ভিত্তিক সঠিক জরীপ পর্যালোচনামূলক লিখিত প্রতিবেদনের আলোকে সাংগঠনিক পত্র সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। তিনি আরো বলেন, দায়িত্ব ও পদবী নিয়ে যারা দলীয় কার্যনির্বাহী বর্ধিত সভায় এবং কেন্দ্রীয় ও দলীয় কর্মকান্ড কর্মসূচিতে ধারাবাহিক ভাবে নিষ্ক্রিয় তাদের পদ-পদবী থাকবে না। তাদের পরিবর্তে সক্রিয় ও পরীক্ষত নেতাকর্মীরাই নেতৃত্বের আসনে যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন, এই লক্ষ্যে ঈদ-উল-ফিতরের প্রতিটি সাংগঠনিক ওয়ার্ডে মাসব্যাপী প্রকৃত নেতাকর্মী যাচাই-বাছাই কার্যক্রম পরিচালিত হওয়ার ঘোষণা দেন। সভায় আগামী ১লা জুলাই মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠন বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর আলহাজ্ব জহুর আহম্মদ চৌধুরীর ৪১ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনষ্টিটিউশনে দিনব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। আজ বিকেল ৪ টায় চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যনির্বাহী কমিটির এক সভা সংগঠনের সহ-সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী’র সভাপতিত্বে তার বাসভবনে অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় সভাপতির ভাষণে মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, দলের শৃঙ্খলা রক্ষায় আমাদেরকে আদর্শিক ভাবে উদ্বুর্ধ হতে হবে। মনে রাখতে হবে কোন অপশীক্ত যেন আমাদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করতে না পারে। সভঅয় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী এডভোকেট সুনীল কুমার সরকার, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য আলহাজ্ব বদিউল আলম, এম.এ. রশিদ, নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, শফিকুল ইসলাম ফারুক, এডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, জোবায়েরা নার্গিস খান, হাজী জহুর আহমদ, আবদুল আহাদ, দিদারুল আলম চৌধুরী, প্রকৌশলী মানস রক্ষিত, দেবাশীষ গুহ বুলবুল, শহীদুল আলম, নির্বাহী সদস্য এম.এ. জাফর, নুরুল আলম, বখতিয়ার উদ্দিন খান, গাজী শফিউল আজিম, গৌরাঙ্গ চন্দ্র ঘোষ, আহমেদ ইলিয়াস, আবদুল লতিফ টিপু, জাফর আলম চৌধুরী, অমল মিত্র, হাজী বেলাল আহমদ প্রমুখ।
সভায় গৃহীত শোক প্রস্তাবে সাবেক রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিক কে.এম. শিহাব উদ্দিন, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য আবদুর রহমান বদন দিদারী ও চট্টগ্রাম মহাগর মহিলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মিসেস নীলুফার রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ এবং তাঁদের পরিবারের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করা হয়। ইফতার পূর্ব সমাবেশে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দীনের মায়ের আশুরোগ মুক্তি কামনা করে দোয়া ও মুনাজাত করা হয়। মুনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা হারুনুর রশিদ।