অন্তর্বাস, মুঠোফোন ও পায়ের জুতার ভেতর সোনা

প্রকাশ:| রবিবার, ৭ মে , ২০১৭ সময় ১১:৫৮ অপরাহ্ণ

অন্তর্বাস, মুঠোফোন ও পায়ের জুতার ভেতর অভিনব কৌশলে ১১টি সোনার বার বিদেশ থেকে অবৈধভাবে আনার সময় তিন যাত্রীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল শনিবার রাতে ও আজ রোববার চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এগুলো উদ্ধার করে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন চট্টগ্রামের ফটিকছড়ির মোহাম্মদ মহিন উদ্দিন ও মোহাম্মদ ফারুক এবং লোহাগাড়ার মোহাম্মদ নুরুল আমিন।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক তারেক মাহমুদ আজ রাতে মুঠোফোনে বলেন, রোববার সকাল সাড়ে ছয়টায় মহিন ইউএস বাংলা ফ্লাইটে, আটটায় রিজেন্ট এয়ারওয়েজে আসেন ফারুক ওমানের মাসকাট থেকে। বিমানবন্দরে মহিনের অন্তর্বাস থেকে চারটি সোনার বার এবং ব্যাগ থেকে ৯৮ গ্রাম সোনা উদ্ধার করা হয়। ফারুকের পায়ের জুতার ভেতর লুকানো চারটি সোনার বার পাওয়া যায়। এর আগে গতকাল শনিবার রাতে এয়ার এরাবিয়া ফ্লাইটে করে আরব আমিরাতের শারজাহ থেকে আসা যাত্রী নুরুল আমিনের মোবাইল তল্লাশি করে ৩টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। তিনজনের কাছ থেকে উদ্ধার করা ১ কেজি ৩৮১ গ্রাম সোনার মূল্য প্রায় ৭০ লাখ টাকা। এ ঘটনায় তিনজনের বিরুদ্ধে নগরের পতেঙ্গা থানায় পৃথক তিনটি মামলা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া সোনাগুলো চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের শুল্ক গুদামে জমা করা হয়েছে।