অধ্যাপক খালেদ সাংবাদিকতার বাতিঘর হিসেবে বেঁচে থাকবে

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৬ জুলাই , ২০১৭ সময় ০৩:৫৭ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম সাহিত্য পাঠচক্রের স্মরণ আলোচনায় বক্তারা

চট্টগ্রাম সাহিত্য পাঠচক্রের উদ্যোগে এদেশের সংবাদপত্র এবং সাংবাদিকতা জগতের বিবেকের বাতিঘরখ্যাত সাংবাদিক, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, সংবিধানপ্রণেতা, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর, সাদা মনের মানুষ, দৈনিক আজাদীর সাবেক সম্পাদক অধ্যাপক মোহাম্মদ খালেদের ৯৫ তম জন্মবার্ষিকী পালন উপলক্ষে সৎ সাংবাদিকতা ও সমাজবাস্তবতায় অধ্যাপক মোহাম্মদ খালেদের ভুমিকা শীর্ষক আলোচনা সভা গতকাল মোমিনরোড়স্থ বাসভবনে সংগঠনের সহ সভাপতি প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুর রহিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত গণপরিষদের সাবেক সদস্য, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক জননেতা এম. আবু. ছালেহ, প্রধান বক্তা হিসেবে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী। চট্টগ্রাম সাহিত্য পাঠচক্রের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আসিফ ইকবালের পরিচালনায় এতে মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন নাট্যজন, সাংবাদিক সজল চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্হিত বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতা স্মৃতি পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুর রহিম, ডিজিটাল বাংলাদেশ পাবলিসিটি কাউন্সিলের আহবায়ক জসিম উদ্দীন চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর কৃষকলীগের যুগ্ন আহবায়ক এড. মোস্তাফা আনোয়ারুল ইসলাম, ছড়াকার তালুকদার হালিম, হৃদয়ে বিজয় ৭১ এর সাধারণ সম্পাদক ডাঃ আর, কে, রুবেল, মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত হোসেন, সংগঠক স.ম. জিয়াউর রহমান, সংগঠনের সহ সভাপতি ডাঃ জামাল উদ্দীন, যুগ্ন সম্পাদক সালাউদ্দীন লিটন, সাংগাঠনিক সম্পাদক বোরহান উদ্দীন গিফারী, সংগঠক লাভলু চক্রবর্তী, সাইফুল আরাফাত বাপ্পা, জয়নাল আবেদীন, সুমন চৌধুরী, ডাঃ মোক্তাদির, রমজান আলী, সাইফুল ইসলাম, তাসকিন চৌধুরী, মোঃ ইমতিয়াজ, জারিয়াদ, সেলিম উদ্দীন, শাখাওয়াত হোসেন শওকত প্রমুখ। সভায় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন অধ্যাপক মোহাম্মদ খালেদ ব্যক্তিগত এবং রাজনৈতিক আজীবন সৎ,নিষ্ঠাবান দেশপ্রেমিক মানুষ নিজের অর্পিত দায়িত্ব পালন করেছেন। একজন নিরহংকার এবং বিবেকসম্পন্ন মানুষ হিসেবে তিনি সাংবাদিকতা পেশাকে এগিয়ে নিয়েছেন। অধ্যাপক মোহাম্মদ খালেদ বায়ান্নার ভাষা আন্দোলন, ৫৪ এর যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ৬৬ এর ৬ দফা আন্দোলন, ৬৯ এর গণ অভ্যুথান, ৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধ সহ দেশের সকল গণ আন্দোলন সংগ্রামে অগ্রণী ভুমিকা পালন করেছেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কর্মী হিসেবে আজীবন তিনি দেশের মানুষের কল্যাণে নিজের মেধা, সামর্থ্য এবং তাঁর কলমকে কাজে লাগিয়েছেন। প্রধান বক্তা চসিক প্যানেল চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী তার বক্ত্যবে বলেন অধ্যাপক মোহাম্মদ খালেদের নির্লোভ ও জ্ঞানসম্পন্ন সাংবাদিক আজ খুবই প্রয়োজন। অধ্যাপক মোহাম্মদ আজীবন মানুষের কল্যাণে এবং দেশের উন্নয়নে তাঁর লেখনী লিখে গেছেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সেনানী হিসেবে মৃত্যুর আগদিন নিজেকে সৎ ও পরিচ্ছন এবং মহৎ মানুষ হিসেবে সমাজের জন্য ভুমিকা রেখেছেন। অধ্যাপক মোহাম্মদ খালেদরাই আমাদের বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে ও আমাদের পথ প্রদর্শক হিসেবে অনন্য সাধারণ ভুমিকা রেখেছেন। সভা শেষে মরহুমের আতœার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।