অদিতি সঙ্গীত নিকেতনের দেড় যুগ পদার্পণে বসন্ত উৎসব ১৪২৪

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| শনিবার, ১৭ মার্চ , ২০১৮ সময় ১১:২৭ অপরাহ্ণ

উত্তর কাট্টলীর ঐতিহ্যবাহী সঙ্গীত প্রতিষ্ঠান অদিতি’র ১৮ বছর পদার্পণ উপলক্ষে উত্তর কাট্টলী ঈশান মহাজন সড়কস্থ কাট্টলী সিটি কর্পোরেশন বালিকা বিদ্যালয়ও কলেজ সংলগ্ন ১৬ মার্চ ২০১৮ তিন দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালার শুরু হয়েছে। অনুষ্ঠানের প্রথম দিবসে ১ম পর্বে কাউন্সিলর আবিদা আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বলনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার অনিন্দ্য ব্যানার্জী। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক আজাদীর সম্পাদক এম. এ. মালেক । প্রধান আলোচক উন্নয়ন কর্মী কমল সেনগুপ্ত, বিশেষ অতিথি প্যানেল মেয়র আলহাজ্ব নিছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, মহানগর পুজা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুজিত দাশ ও ইঞ্জিনিয়ার তরুন তপন দত্ত । প্রবীর পালের সঞ্চানালয়ে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠাতা টুনটু দাশ বিজয়। বিকাল ৪ ঘটিকায় মঙ্গলশোভা যাত্রার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয়। শিক্ষার্থীরা ১০০ কন্ঠে সমেবত সঙ্গীত পরিবেশন করে। বক্তরা বলেন অদিতি সুদীর্ঘ ১৭ বছর ঐতিহ্যের সহিত বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্যে বসন্ত উৎসবটি অত্র এলাকার মানুষের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। আবহমান বাংলার ঐতিহ্য, কৃর্ষ্টি এবং সংস্কৃতি ধরে রাখতে অদিতি কাজ করে যাচ্ছে দীর্ঘ সময় যা অত্যান্ত গৌরবের । চট্টগ্রাম শহরে ডিসি হিল, শিরিষ তলা সহ বিভিন্ন জায়গায় বসন্ত উৎসব হয়। কিন্তু উত্তর কাট্টলীতে এতো সুন্দর এবং ব্যাপক আয়োজনে বসন্ত উৎসব পালিত হচ্ছে যা পত্র পত্রিকায় সেভাবে আসছে না । বসন্ত উৎসব দুই বাঙলার সার্বজনীন উৎসব এটিকে আমারা সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিতে পারলে জঙ্গীবাদ সহ সকল অপশক্তির অবসান হবে। মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার আন্দলনের আরেক নাম সঙ্গীত । সঙ্গীত মানুষের মননশীলতায় কাজ করে তাই সকলকে সঙ্গীতের আবহে আনতে পারলে একটি সুন্দর সমাজ বিনির্মান হবে। অনুষ্ঠানে গুণীজন সম্মননা গ্রহন করেন। আকবরশাহ থানা অফিসার ইনচার্জ মো: আলমগীর, কন্ঠ শিল্পী রতœা দত্ত দে, যন্ত্রশিল্পী শিবু চৌধুরী, চিত্রশিল্পী পঙ্কজ মল্লিক ইমু। বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক শহীদুল ইসলাম দুলদুল, দিদারুল আলম প্রধান, শিপু বিশ্বাস, প্রবীর দত্ত মিঠু, অমর মজুমদার, সুব্রত দে, শিক্ষার্থী পূর্ণা দাশ প্রমুখ। অনুষ্ঠানের ২য় দিবসে আগামী ১৮ তারিখ মঞ্চে সঙ্গীত পরিবেশন করবে প্রেম সুন্দর বৈঞ্ষব ও নিলিমা।


আরোও সংবাদ