‘অতীতের স্বৈরাচারের মতো হবে সরকারের ভাগ্য’ ফখরুল

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১০ জানুয়ারি , ২০১৪ সময় ০৯:১৩ অপরাহ্ণ

৫ই জানুয়ারির একতরফা পাতানো নির্বাচনে বিজয়ী সরকারের ভাগ্য অতীতের স্বৈরাচারী সরকারের মতো হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন। মির্জা আলমগীর বলেন, প্রহসনের নির্বাচনে নিজেদের বিজয়ী ঘোষণা করে অবৈধ আওয়ামী লীগ সরকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে ফ্যাসিবাদী কায়দায় বিরোধী দল নিধন করছে। তারা দেশকে ক্রমান্বয়ে এক চরম নৈরাজ্য ও অস্থিতিশীলতার দিকে ঠেলে দিচ্ছে। তিনি অভিযোগ করেন, সরকার দলীয় গুণ্ডারা সংখ্যালঘুদের ওপর বর্বর হামলা চালিয়ে তার দায়ভার বিরোধী দলের ওপর চাপানোর অপচেষ্টা করছে। মির্জা আলমগীর বলেন, বাংলাদেশের মানুষ অত্যন্ত সচেতন। এছাড়া হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনই হামলার জন্য আওয়ামী লীগকেই দায়ী করে তাদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছে। দলের নেতাকর্মীদের নির্যাতিত সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের পাশে থেকে যথাযথ সাহায্য সহযোগিতা করার আহবান জানান বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব। তিনি বলেন, ৫ই জানুয়ারির পাতানো নির্বাচনে ভোটারদের অনুপস্থিতি ও দেশবাসীর স্বতঃস্ফূর্ত বর্জন এবং দেশ-বিদেশে বিভিন্ন রাষ্ট্র ও সংস্থার প্রবল সমালোচনার মুখে যৌথবাহিনী ও আওয়ামী সন্ত্রাসীদের দিয়ে বিরোধী নেতা-কর্মীদের বাড়িঘরে হামলা, লুটপাট, গ্রেপ্তার ও অগ্নিসংযোগ করা হচ্ছে। মির্জা আলমগীর বলেন, অগ্রহণযোগ্য নির্বাচনের মাধ্যমে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা আঁকড়ে রেখে ষড়যন্ত্র, অপপ্রচার ও অপকৌশল দ্বারা চলমান গণআন্দোলনকে কোনোভাবেই কলুষিত করে স্তব্ধ করা যাবে না। আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার অপব্যবহার এবং বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীদের ওপর নির্যাতন নিপীড়ণ ও গ্রেফতার অভিযান বন্ধ না করলে অতীতের স্বৈরাচারদের মতোই ভাগ্য বরণ করতে হবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে জনগণকে সঙ্গে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান মির্জা আলমগীর।