অতিবৃষ্টির কারণে মারিশ্যা দীঘিনালা সড়কে ব্যাপক পাহাড় ধ্বস

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২৭ সেপ্টেম্বর , ২০১৩ সময় ১১:০০ অপরাহ্ণ

পাহাড় ধ্বসআজ বাঘাইছড়ি উপজেলায় অতিবৃষ্টির কারণে মারিশ্যা দীঘিনালা সড়কে ব্যাপক পাহাড় ধ্বসের সৃষ্টি হয়েছে। চট্টগ্রাম হতে মারিশ্যা অভিমুখি শান্তি পরিবহন গাড়ী ও বাঘাইছড়ি উপজেলা নিবার্হী অফিসারের গাড়ী আটকা পড়েছে। মারিশ্যা থেকে ১২ কিলোমিটার দূরবর্তী স্থানে পাহাড় ভেঙ্গে মাটি রাস্তায় পড়ায় এবং বিছিন্ন ভাবে গাছ রাস্তার উপর উপড়ে পড়ার কারণে এই সমস্যার সৃষ্টি হয়। আজ শুক্রবার আনুমানিক রাত ৮টায় জানা যায় ১২ কিলোমিটারে রাস্তায় পাহাড় ধ্বসে যে মাটিগুলো পড়েছিল তা অতিকষ্টে স্থানীয় লোকজনের দ্বারা সরিয়ে গাড়ী রওনা হলেও ৯ কিলোমিটার এসে রাস্তায় পড়ে থাকা গাছগুলোকে অতিক্রম করতে না পারায় বাধাপ্রাপ্ত হয়। যাত্রীরাসহ গাছগুলো সরিয়ে আবারও মারিশ্যা অভিমুখে রওনা হতে পারলেও সামনে বৃষ্টির কারণে খানা খন্ড অথবা আরো গাছ পড়ে আছে কিনা এ নিয়ে শান্তি পরিবহণ ড্রাইভার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর এবং যাত্রীরা সংশয় ও ােভ প্রকাশ করছে। তাদের মন্তব্যে প্রকাশ বাড়ী ফেরার আশায় আমরা শান্তি পরিবহণে সকাল ১১টা রওনা হয়ে এখনো বাড়ীতে পৌছাতে পারেনি। আজ সারারাত গাড়ীতে বা রাস্তায় বা দূর্ঘটনা স্বীকারে কালকেও বাড়ীতে ফিরতে পারবো কি না সন্দিহান।
এব্যাপারে খাগড়াছড়ি সড়ক বিভাগের সাথে ইতিপূর্বে বার বার যোগাযোগ করলেও সড়ক বিভাগ কর্তৃক সড়কে স্বার্থে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন না করায় সড়ককের এই বেহালদশা সৃষ্টি হয়েছে। বাঘাইছড়িবাসী ও খাগড়াছড়ি সড়ক পরিবহন মালিক গ্র“প এ ব্যাপারে জরুরী ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ভূমিকা পালনের জন্য যোগাযোগমন্ত্রণালয়কে সবিনয়ে অনুরোধ জানানো হচ্ছে। অন্যথায় রাস্তার বেহাল অবস্থার কারণে মরিশ্যা দীঘিনালা সড়কে আগামীকাল থেকে কোন ঘোষনা ছাড়ায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যেতে পারে বলে মনে করছেন বাঘাইছড়ি প্রেস কাবের উপদেষ্টা দীলিপ কুমার দাশ। সড়কটি দীর্ঘদিন যাবত সংস্কার জনিত কাজে অবহেলিত। খাগড়াছড়ি সড়ক বিভাগ প্রয়োজনীয় দায়দায়িত্ব নিচ্ছে না বিধায় বাঘাইছড়ি কাঠ ব্যবসায়ী সমিতি খাগড়াছড়ি সড়ক পরিবহণ মালিকগ্র“প এবং বাঘাইছড়ি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সুদর্শন চাকমার নেতৃত্বে কয়েক লক্ষ টাকা ব্যয়ে যান চলাচল করার জন্য সড়কটি সংস্কার করা হয়। এর মধ্যে দেখা যায় খাগড়াছড়ি সড়ক বিভাগ আজ থেকে গত ১ সপ্তাহ মধ্যে দুই গাড়ী ভাঙ্গা ইট দিয়ে কিছু খানাখন্ড ভরাট করেছে। কিন্তু এইসব কাজ কোন কাজে আসছে না।


আরোও সংবাদ