অটোমোবাইল প্রদর্শনীতে গাড়িপ্রেমিদের সরব উপস্থিতি

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল , ২০১৫ সময় ০৮:২৯ অপরাহ্ণ

গাড়িপ্রেমিদের সরব উপস্থিতিতে জমে উঠেছে ১০তম নিটল-নিলয় ঢাকা মোটর শো এবং বাইক শো ২০১৫। উদ্বোধনের পরপরই দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয় বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় গাড়ির এই আসর। বেলা বাড়ার সঙ্গে ভিড় বাড়তে থাকে ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টার বসুন্ধরাতে। সন্ধ্যা নাগাদ জমে ওঠে প্রদর্শনী।

প্রদর্শনীতে এসে নামি-দামি ব্র্যান্ডের প্রযুক্তি নির্ভর নতুন গাড়ি ও মোটর সাইকেলের সঙ্গে পরিচিত হওয়ার পাশাপাশি এসব গাড়ি সম্পর্কে খুটিনাটি তথ্য জেনে নিচ্ছেন গাড়িপ্রেমিরা। আবার কেউ কেউ গাড়ি ও মোটর সাইকেল বুকিং এবং নগদে কিনে ছাড়ের সুযোগ নিচ্ছেন। অনেকেই গাড়ির নিরাপত্তা, বিভিন্ন যন্ত্রাংশ সম্পর্কেও বিস্তারিত তথ্য নিচ্ছেন।

বসুন্ধরা এ কনভেনশন সিটির গুলনকশা এবং রাজদর্শন হল হাল আমলের গাড়ির পসরা সাজিয়েছেন গাড়ি ও মোটর সাইকেল উৎপাদনকারী এবং আমদানীকারকেরা। পাশাপাশি গুলনকশা হলের পাশে উন্মুক্ত প্রান্তে সামিয়ানা টাঙ্গিয়ে প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে।

নিটল মটরস লিমিটেডের স্টলে গিয়ে ছাড়ের খোঁজ মিললো। প্রতষ্ঠানটি প্রদর্শনী উপলক্ষ্যে গাড়ি কিনলে মোটর সাইকেল ফ্রি’র দিচ্ছে। উত্তরা মটরসহ বিভিন্ন স্টলেও রয়েছে ছাড়সহ নানা অফার।

সিটির রাজদর্শন হলে প্রবেশ করতেই চোখে পরলো দামি সব ব্র্যান্ডের স্পোর্টস ঘরণার বাইকসহ স্ক্রুটার ও ইলেক্ট্রিক বাইক। এছাড়া এ হলে প্রদর্শন করা হচ্ছে মোটর গাড়ির টায়ার, টিউব, লুব্রিকেন্টসহ বিভিন্ন যন্ত্রাংশ ও নিরাপত্তা প্রযুক্তি।
মগবাজার থেকে গাড়ি দেখতে এসেছিলেন কাজী তাহমিন। তিনি বলেন, নতুন মডেলের গাড়ি দেখতে প্রদর্শনীতে এসেছিলাম। এখানে এসে দেখলাম অনেক প্রতিষ্ঠান গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে ছাড় দিচ্ছে। ছাড় পাওয়া যাচ্ছে মোটর সাইকেলেও।
বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী অয়নকে দেখা গেল বন্ধুদের নিয়ে বাইকে শোতে নতুন নতুন মডেলের মোটর বাইক দেখতে। তার সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, মূলত প্রদর্শনীতে মোটর সাইকেল কিনতে এসেছেন তিনি। কয়েকটি ব্র্যান্ডের মোটর সাইকেল পছন্দ হয়েছে তার। ছাড়ের সুযোগ নিয়ে অয়ন প্রদর্শনী চলাকালীন সময়ে মোটর সাইকেল কিনবেন বলে ঠিক করেছেন।
ছাড়ের ছড়াছড়ি
মোটর সাইকেল আমাদনীকারক রাসেল ইন্ডাস্ট্রিজ এর স্টলে মোটরসাইকেলের ওপর তিন থেকে পাঁচ হাজার টাকা পর্ন্ত ছাড় দেয়া হচ্ছে। ম্যাক্স গ্রুপের চারটি মডেলের মোটরসাইকেলে ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা ছাড় পাচ্ছেন ক্রেতারা। অন্যদিকে সুজিকির স্পোর্টস বাইকে রয়েছ ১২ হাজার টাকার ছাড়। পেগাসাস দিচ্ছে মোটর সাইকেলের ওপর শতকরা ৫ ভাগ ছাড়।

জিনান তাদের আমদানীকৃত মোটর সাইকেলে ৫ হাজার টাকা ছাড় দিচ্ছে। হাউজুয়ে এবং টিভিএস ৫ হাজার টাকা ছাড়ের সুযোগ দিয়েছে। এসওয়াইএম এর মোটর সাইকেল নগদ কিনলে ১০ হাজার আর বুকিং দিলে ৫ হাজার টাকা ছাড় পাওয়া যাচ্ছে। মোটর সাইকেলের পাশাপাশি গাড়ির যন্ত্রাংশ এবং গাড়ির নিরাপত্তা প্রযুক্তি পণ্যে ছাড় মিলছে।


আরোও সংবাদ